জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ সোমবার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৬ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২২
জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশ

জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিকে গণবিরোধী ও স্বৈরাচারী সরকারের একতরফা সিদ্ধান্ত বলে দাবি করে সোমবার (৮ আগস্ট) সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসুচী ঘোষণা করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা।

শনিবার (৬ আগস্ট) জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তাৎক্ষণিক সমাবেশে বাম নেতারা এ তথ্য জানান।

সমাবেশে নেতারা বলেন, বিশ্ববাজারে যখন তেলের দাম নিম্নমুখী, সে সময়ে সরকারের এ সিদ্ধান্ত জনগণের ওপর মূল্যবৃদ্ধির বোঝা আরও বাড়াবে। শিল্প, কৃষি, পরিবহন থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়বে। এতে জনজীবনে চরম দুর্দশা নেমে আসবে।

‘সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, গত ছয় মাসে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (বিপিসি) জ্বালানি তেল বিক্রি করে আট হাজার কোটি টাকা লোকসান করেছে। কিন্তু বিগত সময়ে বিশ্ববাজারে যখন তেলের দাম কম ছিল, তখন তেল বিক্রি করে সরকার ৪৭ হাজার কোটি টাকা মুনাফা অর্জন করেছিল। তা দিয়েই এ ঘাটতি পূরণ করা যেত। অথচ সরকার সে পথে না হেঁটে জনগণের ওপর বোঝা চাপিয়ে দিল।

বাম নেতারা আরও বলেন, অবিলম্বে সরকারকে এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা সোমবার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছি। এরপরও যদি সরকার এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করে, তাহলে হরতাল-অবরোধের মতো কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি কমরেড শাহ আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী সাধারণ সম্পাদক রাজেকুজ্জামান রতন, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির নেতা শহীদুল ইসলাম সবুজের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য দেন বাসদের (মার্কসবাদী) সমন্বয়ক কমরেড মাসুদ রানা, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আব্দুল আলী।

এএএম/এসএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]