আসির প্রদেশে প্রবাসীদের পাসপোর্ট সেবা

ক ম জামাল উদ্দীন ক ম জামাল উদ্দীন , সৌদি আরব
প্রকাশিত: ০৯:৩৯ এএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৯

সৌদি আরবের আসির প্রদেশের খামিস মুশাইতে প্রবাসীদের পাসপোর্ট সেবাসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান করেছে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল জেদ্দা। শনিবার স্থানীয় বাংলা মার্কেট এলাকায় এ সেবা দেয়া হয়।

এ দিন খামিস মুশাইতসহ পার্শ্ববর্তী এলাকা তথা আবহা, মাহাইল, দরব, নাজরান, জিজান, আল নামাস, তানদাহা, ওয়াদিবিন, হাসবাল, সারাত আবিদা, হারাজা, জাহারান আল জুনুব, তরিব ও তাছলিস থেকে আাসা প্রবাসীদের সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

কনস্যুলেট সেবা সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ফজরের নামাজের পর থেকে প্রবাসীদের সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। কনস্যুলেট টিমের আন্তরিকতা ও স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির সহযোগিতায় সুশৃঙ্খলভাবে প্রবাসীদের পাসপোর্ট সেবাসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান করা হয়।

লাইনে দাঁড়ানো অনেক প্রবাসীকে আক্ষেপ করে বলতে শোনা যায়, জেদ্দা কনস্যুলেটের নির্দিষ্ট অফিস কবে হবে জানি না, তবে বর্তমানে একটা স্থায়ী অফিস প্রতিষ্ঠা সময়ের দাবি।

sau

জেদ্দার ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল আমিনুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, আমরা প্রবাসীদের সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার চেষ্টা করেছি, ভবিষ্যতেও এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

প্রথম সচিব ও কার্যালয় প্রধান মোস্তফা জামিল খান জাগো নিউজকে বলেন, এবার খামিস ট্যুরে আমরা প্রায় চার হাজার প্রবাসীকে পাসপোর্ট সেবাসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন সেবা প্রদান করেছি।

বিস্তারিত জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, দুইদিন যাবত এমআরপি ইস্যু করা হয় ৪১৭টি, আইনগত সহায়তা প্রদান ৫০ জনকে, আউটপাস একজনকে, নবায়ন এক হাজার ৮৪১, এমআরপি ডেলিভারি এক হাজার ৪৮২টি, সমস্যাজনিত ফাইল ১২টি।

দলের সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন- কনস্যুলার মুজিবুর রহমান ও কনস্যুলার কে এম সালাউদ্দীন। এছাড়া স্থানীয় বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব আজাদ রহমান ও কমিউনিটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

বিএ/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :