বিশ্বনবিকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যে ১০ বছরের জেল

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৩ পিএম, ৩১ মার্চ ২০১৯

বিশ্বের বহু দেশে ইসলাম ও হজরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে অসম্মানজনক ও আপত্তিকর মন্তব্য এবং কার্টুন তৈরি করে বিতর্কের জন্ম দেয় অনেক মানুষ। এ ঘৃণ্য কাজ থেকে মানুষকে বিরত রাখতে মালয়েশিয়া সরকার তার দেশে জরিমানাসহ কারাদণ্ডের আইন জারি করেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইসলাম ও বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করায় সম্প্রতি জরিমানাসহ ১০ বছরের জেল দিয়েছে দেশটির একটি আদালত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ব্যক্তি ইসলাম ও বিশ্বনবি সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন। একই ধরনের অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়ায় ইসলামের অবমাননা ঠেকাতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে দেশটি। ফলে দেশটিতে ইসলাম ও বিশ্বনবির অবমাননাকর কমতে সহায়ক হবে এ আইন।

উল্লেখ্য যে, ইসলাম ও বিশ্বনবির বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্যকারীর বিরুদ্ধে আলাদা আলাদা ১০টি অভিযোগ গঠন করা হয়। প্রতিটি অভিযোগে ১ বছরের জেল এবং ৫০ হাজার রিংগিত জরিমানা করা হয়।

১০ টি অভিযোগে মোট ১০ বছর জেল এবং ৫ লাখ রিংগিত জরিমানা করা হয়। যা ধারাবাহিকভাবে কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়া পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ ফুজি হারুন।

ইসলাম ও বিশ্বনবিকে অবমাননাকর মন্তব্য করা অপর ২ ব্যক্তির বিরুদ্ধে এখনো অভিযোগ গঠন করা হয়নি তবে তারা অভিযোগ গঠনের আপ পর্যন্ত জামিন ছাড়াই আটক থাকবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেসহ সব জায়গায় জাতিগত অসম্মান, উসকানি বন্ধে সব ধরনের উসকানিমূলক বার্তা, ছবি শেয়ার কিংবা আপলোড না করতে দেশটির ধর্মীয় কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার দেশটিতে ইসলাম এবং বিশ্বনবি সম্পর্কে আপত্তিকর লেখা এবং পর্যবেক্ষণের জন্য ইসলামি কল্যাণবিষয়ক বিভাগ একটি পর্যবেক্ষক ইউনিটও গঠন করেছে বলে জানান দেশটির ধর্মীয় কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রী মুজাহিদ ইউসুফ রাওয়া।

ধর্মকে অবমাননাকর কোনো বিষয়েই মালয়েশিয়া সরকার আপোষ করবে না বলেও জানিয়েছেন ধর্মীয় কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রনালয়। ইসলামসহ সর্ব ধর্ম ও জাতিগত বিরোধ মেটাতে নিঃসন্দেহে এটি একটি কার্যকরী ও প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

এমএমএস/আরআইপি