খুব বিবেচনায় আছেন রাজ্জাক : মাহমুদউল্লাহ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫১ পিএম, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ইনজুরিতে পড়ে সাকিব আল হাসান মাঠের বাইরে চলে যাওয়ার পর যখন জানা গেলো তিনি টেস্টও খেলতে পারবেন না, তখন অনেকটা দিশেহারা হয়ে যান নির্বাচকরা। সাকিবের অভাব তারা কাকে দিয়ে পূরণ করবেন! সঙ্গে সঙ্গেই দলে ঢাকা হলো সানজামুল ইসলাম এবং তানবীর হায়দারকে।

কিন্তু একদিন পর নির্বাচকদের মনে হলো এই দুই স্পিনার যথেষ্ট নয় সাকিবের অভাব পূরণে। তাই হঠাৎ তাদের মনে পড়ে গেলো অভিজ্ঞ স্পিনার আবদুর রাজ্জাকের কথা। মাত্র কিছুদিন আগেই ঘরোয়া প্রথম শেণির ক্রিকেটে ৫০০তম উইকেট পেয়েছেন তিনি। যেই ভাবা সেই কাজ। ডাকা হলো রাজ্জাককে এবং উড়িয়ে নেয়া হলো চট্টগ্রাম; কিন্তু নেটে দেখেই রাজ্জাককে বসিয়ে রাখা হলো। খেলানো হলো না চট্টগ্রাম টেস্টে।

দ্বিতীয় টেস্টের দলেও রাখা হয়েছে রাজ্জাককে। সানজামুল ইসলামকে বাদ দেয়ার কারণে ঢাকা টেস্টে তৃতীয় স্পেশালিস্ট স্পিনার হিসেবে আবদুর রাজ্জাককে দলে রাখার সম্ভাবনাই বেশি দেখা যাচ্ছে। যদিও টিম ম্যানেজমেন্ট কিংবা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মুখফুটে এমন নিশ্চয়তার কথা জানাননি মোটেও।

তবে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে আজ ঠিকই রাজ্জাকের বিষয়ে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। জবাবে তিনি বলেন, ‘উনি (রাজ্জাক) খুব বিবেচনায় আছেন খেলার জন্য। তারপরও আমরা একাদশ চূড়ান্ত করিনি। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে চূড়ান্ত করব। আর বোলিং কম্বিনেশন- আমরা আসলে ভিন্নকিছু ভাবছি। ভিন্ন কোন বোলার যদি খেলাতে পারি। ওটা দেখার বিষয়। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেব।’

ঢাকা টেস্টের জন্য টিম কম্বিনেশন কী থাকবে, চট্টগ্রামের মত একই থাকবে নাকি ভিন্ন হবে? জানতে চাইলে সেটাও স্পষ্ট করে কিছু বলেননি রাজ্জাক। তিনি বলেন, ‘এটা এখনো দেখার বিষয়। আমরা এখনো চিন্তা ভাবনা করছি। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনার অনেক কিছু বাকি আছে। আশা করি আজ আমরা এটা কমপ্লিট করব।’

কোনো চমক কিংবা ভিন্ন কোনো কিছু থাকছে কি না একাদশ গঠনে? জানতে চাইলে রিয়াদ বলেন, ‘অতিরিক্ত তাগিদ তো থাকবেই। আর যদি টিম কম্বিনেশনের ব্যাপারে মিন করে থাকেন তবে বলবে ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে সেরাটা ঠিক করব। ওদের সম্ভাব্য দল কি হতে পারে এসব বিবেচনায় রেখে।’

আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :