সাব্বির-পুরান ঝড়ে সিলেটের বিশাল সংগ্রহ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২২ পিএম, ৩০ জানুয়ারি ২০১৯

টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে জিততেই হবে, হারলেই বেজে যাবে বিদায়ঘণ্টা। এমন ম্যাচে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে বিপক্ষে ১৮৯ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে সিলেট সিক্সার্স। প্লে-অফে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে হলে রাজশাহীকে করতে হবে ১৯০ রান।

প্রথমে আফিফ হোসেন ধ্রুব, মাঝে সাব্বির রহমান এবং শেষে নিকলাস পুরানের বিধ্বংসী ব্যাটে নির্ধারিত বিশ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৮৭ রান করেছে সিলেট। আফিফ এবং সাব্বির অর্ধশত করতে ব্যর্থ হলেও চলতি বিপিএলের দ্বিতীয় দ্রুততম ফিফটি করেছেন পুরান।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই একটি করে চার-ছক্কা মেরে নিজেদের বড় সংগ্রহ গড়ার উদ্দেশ্য পরিস্কার করে দেন লিটন কুমার দাস। তবে সে ওভারের শেষ বলেই তাকে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন আরাফাত সানি।

দ্বিতীয় উইকেটে জেসন রয়ের সঙ্গে জুটি বাঁধেন আফিফ। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে আউট হওয়ার আগে ৮ বলে ১৩ রান করেন রয়। তৃতীয় উইকেটে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেন আফিফ এবং সাব্বির। তবে খুব বেশি বাউন্ডারি নির্ভর হয়ে পড়ায় ৪৬ রানের জুটি গড়তে তাদের প্রয়োজন হয় ৪০ রান।

একই কারণে ২টি করে চার-ছক্কা হাঁকালেও ২৯ রান করতে ২৫ বল খরচ করেন আফিফ। চতুর্থ উইকেটে নিকলাস পুরানের সঙ্গে ৫৩ রানের জুটি গড়েন সাব্বির। ১৬তম ওভারে সাজঘরে ফেরার আগে ৪ চার ও ২ ছক্কার মারে ৩৯ বলে ৪৫ রান করেন সাব্বির।

শেষদিকে একাই ঝড় তোলেন নিকলাস পুরান। শেষ চার ওভারে তার ঝড়ো ব্যাটেই ৪৮ রান পায় সিলেট। মাত্র ২১ বলে পূরণ করেন নিজের ফিফটি। শেষপর্যন্ত ৬টি করে চার-ছক্কার মারে ৩১ বলে ৭৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন পুরান।

এসএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]