পাকিস্তান সফর নিয়ে তুমুল সমালোচনা, জবাবে যা বললেন পাপন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:৪৪ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

ক্রিকেট কুটনীতিতে বিসিবি হার মেনেছে। আর পিসিবি জয়ী হয়েছে। বেশিরভাগ ক্রিকেট অনুরাগী এখন এমনটা ভাবলেও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তা মনে করেন না।

দুবাইতে কাল রাতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড চেয়ারম্যান এহসান মানির সাথে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়া নিয়ে একটা আপোস-মিমাংসায় যাওয়ার পর আজ সকালে দেশে ফিরেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

সকালে ১১ টার পর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরনের পর উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আলাপে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরের সঙ্গে আমার আগেই কথা হয়েছিল যে- এই সময়টায় উনি থাকবেন, আমি সময় পেলে যেন দেখা করি। গিয়ে দেখলাম পাকিস্তানও আছে ওখানে। আমাদের আগেই তারা গিয়েছে। উনাদের সঙ্গে কথাও হয়েছে। আমার সঙ্গে যখন প্রথম কথা হলো, বললো যে আড়াইটার সময় আমাদের সঙ্গে বসবে।’

আইসিসিতে সেই বৈঠকে কথা উঠলো, পাকিস্তান একটা টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি খেলে আসা যায় কিনা। বিসিবি সভাপতি উত্তরে বলেন, ‘আমরা বলেছি শুধু টি-টোয়েন্টি খেলে চলে আসতে চাই। তারপর একটা সময় যাবো। পাকিস্তানের বেশ লসও হচ্ছে। পাকিস্তানে গিয়ে তাদের মাটিতে খেলার আগে আমাদের একটা প্র্যাক্টিস ম্যাচ দরকার। ওরা বলেছিল টি-টোয়েন্টি করা যায় কি না। টি-টোয়েন্টি হলে তাদের আর্নিংটা (আয়) কিছুটা পোষাবে। তিনবারে একটা টুর্নেমেন্ট আয়োজন করায় তাদের জন্য অনেক খরচ বেড়ে গেছে। এতো সময়ও নেই তারা, নতুন করে মার্কেট করতে পারবে। আমাদের কাছে মনে হয়েছে টি-টোয়েন্টির চেয়ে একটা ওয়ানডে ম্যাচ হলে অনুশীলনটা একটু ভালো হবে।’

সরাকারি আদেশের বিষয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘সরকার থেকে বলা আছে, আগে থেকে আমরা যেটা বলে আসছি সেটাই লেখা আছে। তারা বলেছে শর্ট স্টে (অবস্থান)। অবস্থা বিবেচনা করে পরবর্তীতে টেস্টগুলো খেলবে। আমরা এখন পর্যন্ত সেই ধারাতেই আছি।’

পাকিস্তানের কাছে কুটনৈতিক পরাজয় হয়েছে- এমনটাই গুঞ্জন আগেরদিন থেকে। চারদিকেই সমালোচনা চলছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমি জানি না এটা কেন বলছে (সবাই)। ওরা কখনোই বলেনি, আমরা টি-টোয়েন্টি খেলে আসবো। ওরা প্রথমে বলেছে ফুল সিরিজ খেলতে হবে। পরে বলেছে আগে টেস্ট খেলতে হবে। এখন এটা তারা (সমালোচকরা) কেন বলছে তার কোনো কারণই খুঁজে পাচ্ছি না। আমার কাছে এটা অদ্ভুত লাগছে। আমরা যেটা বলেছি, আমার মনে হয় এটাই হয়েছে। আমি যেদিন প্রথম মিডিয়াতে বলেছি, এটাই বলেছি যে- আমরা প্রথমে যাবো টি-টোয়েন্টি খেলে আসবো। পরে আমরা টেস্ট খেলবো। সেটাই তো হচ্ছে।’

এআরবি/আইএইচএস/এমকেএইচ