‘মনের মতো ফিল্ডিং না পেলে বোলিং করব না’

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:১০ এএম, ১২ এপ্রিল ২০২০

বোলার চাচ্ছে একরকম ফিল্ড সেটআপ, অধিনায়ক বলছেন অন্যরকম; দুইজনের সংক্ষিপ্ত কথার লড়াইয়ে খেলা গেছে থেমে, অপেক্ষায় ব্যাটসম্যান-আম্পায়াররা। ক্রিকেট মাঠে খুব পরিচিত দৃশ্য নয় এটি। তবে মাঝেমধ্যেই হয় এমন, যা কখনও বোঝা যায় খালি চোখে, আবার কখনও বোলার-ক্যাপ্টেন সামলে নেন খুব দ্রুত।

তেমনই এক ঘটনার কথা জানালেন ইংল্যান্ডের ডানহাতি পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড। টেস্ট ফরম্যাটে ইংলিশদের পক্ষে নতুন বলের দায়িত্বটা সামলান স্টুয়ার্ট ব্রড এবং জিমি অ্যান্ডারসন। পরিমিত গতির সঙ্গে সুইংয়ের মিশেলে জুটি বেধে অসাধারণ বোলিং করেছেন ব্রড-অ্যান্ডারসন।

কিন্তু কখনও কি এমন হয়েছে যে, অধিনায়ক মন মতো ফিল্ড সেটআপ দেয়নি বলে বোলিং করতে দিয়েছিলেন? প্রশ্নটা করা হয়েছিল ব্রডকে। নিজের দিকে ধেয়ে আসা বাউন্সার মোকাবিলায় অ্যান্ডারসনের আশ্রয় নেন ব্রড। জানিয়ে দেন নিজের বোলিং পার্টনারের এমন এক ঘটনার কথা।

ব্রড বলেন, ‘গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেন্ট লুসিয়া টেস্ট, সিরিজের শেষ ম্যাচ ছিল। সেই ম্যাচে ইনিংসের প্রথম বল করার আগে অ্যান্ডারসন চাচ্ছিল ফাইন লেগের ফিল্ডার যেন আরও স্কয়ারের দিকে সরে দাঁড়ায়। কিন্তু রুট (জো রুট, ইংলিশ অধিনায়ক) বারবার ফাইন লেগের ফিল্ডারকে বলছিল, আরও ফাইনার হতে। রুট নিজের সিদ্ধান্তে অনড় ছিল। ফলে অ্যান্ডারসন তখন বলল, ফাইন লেগের ফিল্ডার আরও স্কয়ার না হলে, বোলিং করব না। মিডঅফে দাঁড়িয়ে আমি ভাবছিলাম, এই ম্যাচ আর শুরু হবে না।’

অধিনায়ক-বোলারের মধ্যে ফিল্ড সেটআপ নিয়ে ঝামেলা এটিই প্রথম নয়। প্রায়ই হয় এমন। যার প্রমাণ দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার মাইকেল হোল্ডিং। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক শন পোলকের সঙ্গে আড্ডায় নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের স্মৃতিচারণ করেছেন হোল্ডিং।

তিনি বলেন, ‘অ্যান্ডারসনের মতো আমারও প্রায় একইধরনের ঘটনা আছে শারজাহতে, ওয়ানডে ম্যাচ ছিল। আমি অধিনায়কের কাছে নির্দিষ্ট ফিল্ড সেটআপ চাচ্ছিলাম। কিন্তু সে রাজি ছিল। তখন আমি আমার বোলিং মার্কে ঠায় দাঁড়িয়ে গেলাম। সে (অধিনায়ক) বুঝতে পারল, এভাবে তো খেলা শুরুই হবে না। আবার আমার কাছে এসে জিজ্ঞেস করল কেমন ফিল্ডিং চাই। অমন করে সাজাল ফিল্ডিং, তখন আমি বোলিং শুরু করি।’

এসএএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]