উইলিয়ামসনের আড়াইশতে রানপাহাড়ে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৫ এএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

এমন ব্যাটসম্যান দলে একজন থাকলেই তো হয়! কেন উইলিয়ামসনের চিরাচরিত মাস্টারক্লাসের সামনে মুখ থুবড়ে পড়লো ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলিং আক্রমণ। হ্যামিল্টনে সিরিজের প্রথম টেস্টে বলতে গেলে একাই সফরকারিদের কোণঠাসা করে দিয়েছেন কিউই অধিনায়ক।

উইলিয়ামসনের ২৫১ রানের মহাকাব্যিক এক ইনিংসে ভর করেই সিরিজের প্রথম টেস্টে রানপাহাড়ে চড়েছে নিউজিল্যান্ড, ৭ উইকেটে ৫১৯ রান তুলে করেছে ইনিংস ঘোষণা।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে আগের দিনই দলকে বড় সংগ্রহের ভিতে দাঁড় করিয়ে দিয়েছিলেন উইলিয়ামসন। টম লাথাম ৮৬ রানে ফিরলেও সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে তাড়াহুড়ো করেননি তিনি। ৯৭ রানে ছিলেন অপরাজিত।

২ উইকেটে ২৪৩ রান নিয়ে দিন শুরু করা নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় দিনেও দাপট দেখিয়েছে উইলিয়ামসনের ব্যাটে চড়েই। একটা প্রান্ত আগলে রেখে একের পর এক জুটি গড়েছেন।

বাকি ব্যাটসম্যানরা তেমন সুবিধা করতে না পারলেও আট নম্বরে নেমে হার না মানা ৫১ রানের একটি ইনিংস খেলেছেন কাইল জেমিসন। সপ্তম উইকেটে উইলিয়ামসনের সঙ্গে ৯৪ রানের একটি গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন এই লোয়ার অর্ডার।

দলকে পাঁচশ পার করে দিয়ে শেষ পর্যন্ত আলজেরি জোসেফের শিকার হন উইলিয়ামসন। ৪১২ বলে গড়া তার ২৫১ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংসটিতে ছিল ৩৪ বাউন্ডারি আর ২টি ছক্কার মার। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি কিউই দলপতির ক্যারিয়ারসেরা ইনিংস এবং তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন দুই পেসার শেনন গ্যাব্রিয়েল আর কেমার রোচ। একটি উইকেট আরেক পেসার জোসেফের।

এমএমআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]