৮ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে শেখ রাসেলের জয়

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৫৪ পিএম, ০৩ জুলাই ২০২২

প্রথম পর্বের শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সঙ্গে দ্বিতীয় পর্বের শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে মেলানো যাবে না। প্রথম পর্বে হারের পর হারে রেলিগেশন শঙ্কা তৈরি হওয়ার পর কোচ সাইফুল বারী টিটোকে বরখাস্ত করে ক্লাবটি।

এরপর দায়িত্বপ্রাপ্ত কোচ জুলফিকার মাহমুদ মানিকের হাত ধরে ধীরে ধীরে পায়ের নিচে মাটির নাগাল পেতে শুরু করেছে ব্লুজরা। ১৮ ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সাবেক চ্যাম্পিয়নরা মুখ দেখানোর মতো একটা অবস্থানে উঠে এসেছে।

সর্বশেষ ৫ ম্যাচের দুটি জিতেছে, একটি ড্র করেছে। সর্বশেষ রোববার ৮ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে শেখ রাসেল ৫-৩ গোলে হারিয়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে।

কিংস এরেনায় অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে গোল পাল্টাগোল, আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমে উঠেছিল ম্যাচটি। এক পর্যায় বড় ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ার অবস্থা তৈরি করেছিল ব্লুজরা। শেষ দিকে দুটি গোল দিয়ে হারের ব্যবধান ছোট করেছে উত্তর বারিধারা ক্লাব।

১১ মিনিটে জুয়েলের গোলে এগিয়ে যায় রাসেল। ৩৮ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন নাসির। পরের মিনিটেই ব্যবধান কমায় বারিধারা। গোল করেন শামিম।

প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ে ও দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর তিন মিনিটের মধ্যে দুটি গোল করে ব্যবধান ৪-১ করে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের। ৫২ মিনিটে রাব্বীর গোলে রাসেলের এগিয়ে যাওয়ার ব্যবধান হয় ৫-১। ৬২ মিনিটে বারিধারার মারুফ ও ৮১ মিনিটে সাকিবের গোলে হারের ব্যবধান কমে ৫-৩ হয় উত্তর বারিধারা ক্লাবের।

এই জয়ে ১৮ ম্যাচ শেষে ২১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের অষ্টম স্থানে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। সমান ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৯ নম্বরে আছে উত্তর বারিধারা ক্লাব।

আরআই/আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]