শেয়ারের আগে হোয়াটসঅ্যাপে মিউট করা যাবে ভিডিও

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১৮ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মহামারি করোনায় মানুষ বাইরে কম বের হওয়ার কারণে ব্যাপক হারে বেড়েছে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার। গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে গত বছর একের পর এক নতুন ফিচার নিয়েও হাজির হয়েছে মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ। বিজনেস অ্যাকাউন্টের জন্য কার্ট অপশন, পেমেন্ট অপশন এনেছে তারা।

একসঙ্গে একটাই হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট একের বেশি ফোনে চালানোর জন্যও নতুন ফিচার আনতে পারে বলে জানা গিয়েছে। এবার এসবের পাশাপাশি ভিডিও মিউট করার অপশন আনছে তারা। যার কথা গত বছরেই জানা গিয়েছিল। এবার সেই ফিচারেরই টেস্টিং শুরু করল সংস্থা।

২০২০ সালের শুরুতে বা তার কিছুটা আগে থেকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে অনেকটাই। মহামারিতে যা বেড়েছে আরও অনেকটা বেশি। তথ্য বলছে, বহু মানুষ ঘরবন্দী হয়ে যাওয়ার পরে হোয়াটসঅ্যাপকেই মেসেজের প্রাথমিক মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করেছেন।

আবার অনেকেই নিজের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ ভিডিও কলের সাহায্য নিয়েছেন। এই মেসেজিং অ্যাপ ওয়ার্ক ফ্রম হোমের ক্ষেত্রেও অনেকটা সুবিধে করে দিয়েছে। মোটামুটি ব্যবহারকারীরা গড়ে ১৫ বিলিয়ন মিনিট কাটিয়েছেন এই অ্যাপে।

যার কথা মাথায় রেখে এই সব নতুন ফিচার এনেছে সংস্থা। জানা গিয়েছে, কাউকে ভিডিও পাঠানোর আগে তা মিউট করা যাবে এবার থেকে। অ্যান্ড্রয়েড বেটা v2.21.3.13 ভার্সনে এই অ্যাপের টেস্টিং চলছে। হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে এই ফিচার নতুনভাবে চালু হলেও ইনস্টI গ্রামের ক্ষেত্রে কিন্তু আগেই চালু হয়ে গিয়েছে। এই প্ল্যাটফর্মে কাউকে সরাসরি ভিডিও পাঠানোর জন্য বর্তমানে মিউট করার অপশন পাওয়া যাচ্ছে।

শোনা যাচ্ছে, এই ফিচার চালু করলে একদম প্রথমে আওএস-এর জন্যই চালু করবে সংস্থা। পরে অ্যান্ড্রয়েডে আনা হবে। WABetaInfo-র তথ্য বলছে, এই ফিচারটি হোয়াটসঅ্যাপের বেটা ব্যবহারকারীদের জন্য উপলব্ধ হবে। কাউকে ভিডিও পাঠানোর আগে একটি ভলিউম অপশন পাওয়া যাবে। যাতে মিউট করার অপশন থাকবে। এই ভলিউম অপশনটি আবার পাওয়া যাবে ভিডিও এডিট সেকশনে। বাকি সব অপশন এডিটে একদম আগের মতোই থাকবে।

এর আগে এই অপশনটি অ্যান্ড্রয়েড বেটা v2.20.207.2-এ ছিল। কিন্তু ওই ভার্সনে শুধুই কাজ চলেছে। বাকি আর কিছু হয়নি। পরে v2.21.3.13 ভার্সনে টেস্টিংয়ের কাজ শুরু করার কথা পরিকল্পনা করে তারা।

নতুন ফিচার আনলেও সম্প্রতি প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে যে সমস্যা তৈরি হয়, তাতে প্রচুর ব্যবহারকারী এই অ্যাপ ছেড়ে অন্য অ্যাপে চলে গিয়েছেন।

এমএমএফ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]