'জাতিসংঘে বাংলা চাই' দাবিতে সোচ্চার চবির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক চবি
প্রকাশিত: ০৮:১১ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:৪৪ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) 'জাতিসংঘে বাংলা চাই' স্লোগানে অলোচনা সভা, ভোটিং ক্যাম্পেইন ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কম-এর আয়োজনে ও বহুজাতিক শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ গ্রুপের সহোযাগিতায় জাতিসংঘের সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলাকে অন্তর্ভুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী চলছে অনলাইন ভোটিং।

এর অংশ হিসেবে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চবি সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে ক্যাম্পইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। এসময় অনুষ্ঠানে ও ক্যাম্পেইনে অংশ নেয়া শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এ দাবির প্রতি সোচ্চার হয়ে জাগো নিউজের উদ্যোগকে সমর্থন জানান।

জাগোনিউজ২৪.কম এর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক আবদুল্লাহ রাকীবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদ।

CTG

জাগো নিউজের এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে জোরালো সমর্থন জানিয়ে উদ্বোধকের বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতিসংঘ শান্তি মিশনে এক নম্বর রয়েছে বাংলাদেশ। তাই বাংলা ভাষাকে দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া তাদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। আমরা আশা করছি জাতিসংঘ অচিরেই বাংলাকে ৭ম দাপ্তরিক ভাষার স্বীকৃতি দেবে।

এর আগে প্রফেসর ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদ অন্যান্য অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে জাতিসংঘের সপ্তম দাপ্তরিক ভাষার দাবিতে অনলাইনে ভোট দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। পাশাপাশি অন্যদেরও ভোট দিতে উৎসাহিত করেন।

এদিকে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. সেকান্দার চৌধুরী বলেন, ভাষা আন্দোলনের সূত্রপাত হয় ১৯৪৮ সালে এবং ১৯৫২ সালে রক্তাক্ত ইতিহাসের মাধ্যমে তা অর্জিত হয়। রক্ত দেয়ার ইতিহাস শুধু বাঙালি জাতির আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসার পর প্রথম আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য জাতিসংঘে আবেদন করেন। আর জাগো নিউজের এ উদ্যোগ সেই আবেদনকে আরও বেশি জোরালো করলো। যা অত্যন্ত প্রশংসার দাবিদার।

ctd

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. আলী আজগর চৌধুরী বলেন, বাংলা ভাষাকে জাতিসংঘের ৭ম দাপ্তরিক ভাষা করার জন্য জাগো নিউজের এমন আয়োজন অত্যন্ত গর্বের ও আনন্দের। বাংলা ভাষার স্বীকৃতির জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রথম উদ্যোগ নিয়েছিলেন। সেই সূত্রে একুশে ফেব্রুয়ারি আজ আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। অন্যদিকে, বঙ্গবন্ধু প্রথম জাতিসংঘে বাংলায় ভাষণ দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলা ভাষার যৌক্তিকতা তুলে ধরেছেন। এ আয়োজন থেকে আমরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাতিসংঘে বাংলাকে ৭ম দাপ্তরিক ভাষা করার দাবি জানাচ্ছি।

আলোচনা সভা শেষে চাকসুর সামনে থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার অভিমুখে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। সেখানে স্থাপিত ভোটিং বুথে উৎসুক শিক্ষার্থীরা ভোট প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন চবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আশহাবুর রহমান শোয়েব ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর হাসান। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্যবৃন্দ, কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ ও বিভিন্ন বিভাগ-ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা।

আবদুল্লাহ রাকীব/এমএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]