ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন উপাচার্য শেখ আব্দুস সালাম

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৫ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক শেখ আব্দুস সালামকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) উপাচার্য নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনে ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ১৯৮০’ এর ১০(১) ধারা অনুযায়ী এই নিয়োগ দিয়ে মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

শেখ আব্দুস সালাম চার বছরের জন্য এই নিয়োগ পেয়েছেন বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে। তিনি অবসরের আগের পদে প্রাপ্ত বেতন-ভাতার সমপরিমাণ বেতন-ভাতা পাবেন। বিধি অনুযায়ী পদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবেন তিনি।

শেখ আব্দুস সালাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান করবেন। রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর প্রয়োজনে যেকোনো সময় এই নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত ২০ আগস্ট ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর রশিদ আসকারীর মেয়াদ শেষ হয়েছে। সেই হিসেবে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে শূন্য ছিল বিশ্ববিদ্যালয়টি শীর্ষ এ পদটি। ইবিতে এ পর্যন্ত মোট ১২ জন উপাচার্য দায়িত্ব পালন করেছেন। যদিও এদের মধ্যে ১১ জনই মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেননি। দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, আর্থিক অনিয়মসহ নানা অভিযোগের দায়ে উপাচার্য পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়েছে তাদের।

ড. শেখ আব্দুস সালাম বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৭৫ সালে অর্থনীতিতে বি এ (সম্মান) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৭৬ সালে অর্থনীতিতে এম এ ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় এম এ এবং এল এল বি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৮৬ সালে ভারতের পুনে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় পিএইচ ডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

ড. সালাম বাংলাদেশ সরকারের ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও ধর্ম বিষায়ক মন্ত্রণালয়ে গবেষণা কর্মকর্তা পদে ৪ বছর চাকরি করেছেন। তিনি ১৯৮৬-৮৭ সালে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ফর ভল্যুন্টারি স্টেরিলাইজেশনের (বিএভিএস) পরিচালক, প্রোগ্রাম অ্যান্ড আই ই সি পদে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৭ সালে শিক্ষক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন তিনি।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। এছাড়া ২০০৬ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান এবং ২০০৯ সালে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিনের দায়িত্ব পালন করেন।

আরএমএম/এমএসএইচ/এমএইচএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]