জেলেকে দেখে গাড়িবহর থামিয়ে দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০১৭

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী-মন্ত্রী এমপিদের মধ্যে কেউ মাটি কেটে, কেউ ফুটপাতে দাঁড়িয়ে চা-বিস্কুট খেয়ে, আবার কেউ রিকশা বা মোটরসাইকেল চালিয়ে, অ্যাম্বুলেন্স চালিয়ে রোগী হাসপাতালে নিয়ে, কেউ গান গেয়ে দেশজুড়ে বেশ আলোচিত হয়েছেন।

এবার সেই আলোচনায় নতুন মাত্রা যোগ করলেন বর্তমান সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। গাড়িবহর নিয়ে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ এক জেলেকে দেখে গাড়িবহর থামিয়ে দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

তখন ওই জেলে খালে জাল ফেলছেন। জেলেকে খালে জাল ফেলতে দেখে ফেলে আসা সেই দুরন্ত গ্রামীণ জীবনে ফিরে যান মন্ত্রী। তড়িগড়ি করে ওই জেলের হাত থেকে জাল নিয়ে নিজেই খালে জাল ফেললেন।

নিজ নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের একটি খালে মাছ ধরতে জাল নিক্ষেপ করেন মন্ত্রী। পরে মন্ত্রীর মাছ ধরার এই দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। গত দুইদিন ধরে মন্ত্রীর মাছ ধরার ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে আছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার (০৪ আগস্ট) পরিকল্পনামন্ত্রী তার নিজ নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের একটি সভায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে দুপুর আড়াইটার দিকে ওই উপজেলার ঢালুয়া এলাকায় স্থানীয় এক জেলে জাল দিয়ে খালে মাছ শিকার করছেন। জেলেকে দেখে আচমকা গাড়ি থেকে নেমে পড়েন মন্ত্রী।

মন্ত্রীর গাড়িবহরে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ, অন্যান্য কর্মকর্তা ও দলীয় নেতা-কর্মীরা কিছু বুঝে উঠার আগেই মন্ত্রী ওই জেলের কাছ থেকে জালটি হাতে নেন।

এ সময় ওই ব্যক্তি হতভম্ব হয়ে পড়েন এবং আনন্দে জালটি মন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। পরে মন্ত্রী মাছ ধরার জন্য জালটি খালে নিক্ষেপ করার প্রস্তুতি নেন। পরিকল্পনা মন্ত্রী বলে কথা! তাও আবার জালটি খালের পানিতে ফেলবেন।

মন্ত্রীর গাড়িবহরে থাকা নেতাকর্মী ছাড়াও অভূতপূর্ব ওই দৃশ্য দেখার জন্য ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন আশপাশের উৎসুক লোকজন। মন্ত্রী যথারীতি জাল হাতে নিয়ে অনেকটা পাকা মাছ শিকারির মতোই জাল ও রশি (ডান হাতে) বেঁধে নেন, পরে খালের পানিতে জাল নিক্ষেপ করেন।

এরপর রশি হাতে টেনে টেনে ডাঙ্গায় টেনে তুলে আনেন। এ সময় কাঙ্ক্ষিত মাছ না পাওয়া গেলেও জাল দিয়ে মন্ত্রীর মাছ শিকারের এ দৃশ্য অনেকেই মোবাইল ও ক্যামেরায় ধারণ করে তাৎক্ষণিকভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

দলীয় নেতাকর্মীরা বলেন, মন্ত্রী একাধিক জনসভায়ই বলেন, ‘আমি কৃষকের ছেলে, গ্রামের ছেলে।’ মন্ত্রীর জাল হাতে নিয়ে মাছ শিকারের এই শখ থেকে এ কথা আবারও প্রমাণিত হলো।

মন্ত্রীর গাড়িবহরে থাকা সাংবাদিক ফিরোজ মিয়া জানান, জাল হাতে নিয়ে মন্ত্রীর মাছ ধরার এ দৃশ্য সত্যিই মানুষকে মুগ্ধ করেছে। তিনি যে শৈশবের কথা ভুলে যাননি এবং গ্রামীণ জনপদের মানুষের মাঝে মিশে আছেন তা প্রমাণ করলেন।

মো. কামাল উদ্দিন/এএম/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :