আগামী নির্বাচন আওয়ামী লীগের জন্য চ্যালেঞ্জ : কেরামত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৭:১৯ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮

শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী বলেছেন, আমাকে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তা সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করব।

তিনি বলেন, বর্তমানে কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে বহু দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে আমাদের দেশের বেকার সমস্যা দূর করতে হবে। এ জন্য রাজবাড়ীতে একটি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করব।

বুধবার বিকেলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রাজবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগ আয়োজিত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

পথসভার আগে আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। এটি জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে বেরিয়ে শহরের প্রধান সড়ক হয়ে বাজার এলাকা প্রদক্ষিণ করে। পরে রেলগেট সংলগ্ন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে পথসভায় মিলিত হয়।

কাজী কেরামত আলী বলেন, কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থাকে যুগোপযোগী, ডিজিটালাইজড ও আধুনিকায়ন করা হবে। যাতে কেউ তাদের বাঁকা চোখে না দেখে।

তিনি আরও বলেন, আগামী নির্বাচন আওয়ামী লীগের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। এ জন্য প্রতেকটি সংগঠনকে শক্তিশালী হতে হবে। সংগঠন শক্তিশালী হলে আওয়ামী লীগের সামনে কেউ দাঁড়াতে পারবে না। নির্বাচনের আগে উন্নয়নের যেসব কাজ অসমাপ্ত আছে তা সমাপ্ত করারও চেষ্টা করা হবে।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম সফির সঞ্চলনায় পথসভায় বক্তব্য রাখেন- সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হেদায়েত আলী সোহরাব, পৌর মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট সফিকুল হোসেন, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক এমএম নওয়াব আলী, আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট উমা সেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ রাজিব, সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওহিদুজ্জামান, জাতীয় শ্রমিক লীগ রাজবাড়ী জেলা শাখার সভাপতি রকিবুল ইসলাম পিন্টু, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট উজির আলী ও যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাডভোকেট আশরাফুল আলম আশা প্রমুখ।

রুবেলুর রহমান/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :