নরসিংদীতে ইউপি চেয়ারম্যান হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নরসিংদী
প্রকাশিত: ০৮:৫৬ পিএম, ০৬ মে ২০১৮
ছবি-ফাইল

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার বাঁশগাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সিরাজুল হক হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে এক আসামি।

রোববার সন্ধ্যায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন।

পুলিশ সুপার জানান, গ্রেফতার আবদুল আলী মৃধা বাঁশগাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক (৭৫) হত্যার দায় স্বীকার করেছে। আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে সে। জবানবন্দিতে হত্যাকাণ্ড নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে আবদুল আলী। তদন্তের স্বার্থে কারও নাম ও তথ্য প্রকাশ করা যাচ্ছে না। তবে অচিরেই হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের কারণ উদঘাটনসহ হত্যা রহস্য উন্মোচন সম্ভব হবে।

প্রসঙ্গত, রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য সিরাজুল হক ছয়বার ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন। গত ৩ মে দুপুরে উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা শেষে বাঁশগাড়িতে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন তিনি।

চেয়ারম্যানের বহনকারী মোটরসাইকেলটি রায়পুরা-বাঁশগাড়ি সড়কের আলীনগর আড়াকান্দা নামক স্থানে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা গতিরোধ করে। ওই সময় দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেল চালককে মারধর করে সরিয়ে দেয়।

এরপর চেয়ারম্যানকে গুলি করে সড়কের পাশের জলাবদ্ধ জমিতে ফেলে দেয়। ওই সময় সড়কে চলাচলরত লোকজন এগিয়ে গেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় প্রথমে চেয়ারম্যান সিরাজুল হককে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর সময় তিনি পথে মারা যান।

সঞ্জিত সাহা/এএম/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :