যশোরে বিমান বাহিনীর প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ১০:০৬ পিএম, ০১ জুলাই ২০১৮

যশোরে বিমান বাহিনীর একটি প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন বিমানের দুই পাইলট। রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে যশোর সদর উপজেলার বুকভরা বাওড়ের মধ্যে বিমানটি আছড়ে পড়ে বিধ্বস্ত হয়। খবর পেয়ে বিমান বাহিনী, ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। বিমানের কিছু ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার হলেও এখনও দুই পাইলটের সন্ধান পাওয়া যায়নি। রাত ১২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চলছিল।

যশোর বিমান বন্দরের ব্যবস্থাপক আলমগীর পাঠান বলেন, রোববার রাত ৯টা ২০ মিনিটে যশোরের মতিউর রহমান বিমান ঘাঁটি থেকে একটি প্রশিক্ষণ বিমান উড্ডয়ন করে। এর কিছুক্ষণ পর সেটি যশোর সদর উপজেলার ফরিদপুর গ্রামের বুকভরা বাওড়ের মধ্যে আছড়ে পড়ে যায়। বিমানটিতে দু’জন পাইলট ছিলেন। এখনও তাদের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আবুল বাশার মিয়া জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে যশোর সদর উপজেলার ফরিদপুর গ্রামের বুকভরা বাওড়ের মধ্যে বিমান বাহিনীর একটি প্রশিক্ষণ বিমান পড়ে যাওয়ার খবর পান তারা। এ খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস টিম ঘটনাস্থলের উদ্দেশে যাত্রা করে।

jagonews24

বিমান বাহিনী সূত্র জানায়, যশোরের মতিউর রহমান বিমান ঘাঁটি থেকে প্রশিক্ষণ বিমানটি নিয়ে উড়ে যান স্কোয়াডন লিডার এনায়েত ও স্কোয়াডন লিডার সিরাজ। উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই তারা টাওয়ার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান। এরপরই বিমানটি বিধ্বস্তের খবর পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে বিমান বাহিনীর সদস্যরাসহ ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। তবে রাতের আঁধার ও বিরূপ আবহাওয়ার কারণে ডুবে যাওয়া বিমানের অবস্থান চিহ্নিত করতে বিলম্ব হয়। উদ্ধার অভিযানের শুরুতেই পানিতে ভাসতে থাকা বিধ্বস্ত বিমানের কিছু ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়। তবে নিখোঁজ দুই পাইলটের কোনো খোঁজ এখনও পাওয়া যায়নি। উদ্ধার অভিযানে অংশ নিতে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলের উদ্দেশে যাত্রা করেছে। তারা পৌঁছানোর পর উদ্ধার অভিযানে যোগ দেবেন।

এদিকে, বিকট শব্দে বিমান বুকভরা বাওড়ের মধ্যে পড়ে যাওয়ায় এলাকাবাসীও সেখানে ভিড় করেন। বাওড়ের পাড় জুড়ে এলাকাবাসী অবস্থান নেন। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও এলাকায় অবস্থান নিয়েছেন। রাত হলেও এলাকার শত শত মানুষ বাওড়ের পাড়ে ভিড় করেছেন।

চান্দুটিয়া বাজারের ব্যবসায়ী শ্যামল কুমার সিংহ জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি বাজারে ছিলেন। এ সময় প্রচণ্ড একটি শব্দ শুনে তারা অনেকেই আরিচপুর বাজার সংলগ্ন বুকভরা বাওড়ে ছুটে যান। দূর থেকে তারা দেখতে পান একটি বিমানের কিছু অংশ বাওড় পাড় থেকে প্রায় ৩শ’ মিটার দূরে পানিতে ভাসছে। কেউ কেউ নৌকা নিয়ে বিমানটির কাছাকাছিও গেছেন। কিন্তু কোনো মানুষের সন্ধান পাওয়া যায়নি। তবে গোটা এলাকা পেট্রোলজাতীয় জ্বালানির গন্ধে ভরে উঠেছে। প্রচণ্ড বৃষ্টি আর অন্ধকারের কারণে কোনোকিছু ঠিকভাবে দেখাও যাচ্ছে না।

মিলন রহমান/এএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]