রামুর পাহাড়ে যুবকের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০২:৪৫ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৯
ফাইল ছবি

কক্সবাজারের রামুতে ক্ষতবিক্ষত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি এলাকা কালিবইন্ন্য বালুরঘোনা রাবার বাগান থেকে গর্জনিয়া ফাঁড়ির পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে রামু থানায় নিয়ে আসে।

নিহত আবদুল মোতালেব (৩৪) রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ থোয়াঙ্গারকাটা এলাকার হাজী মো. হাসান ওরফে ডবল হাজির ছেলে।

রামু থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গহীন পাহাড়ে একটি ক্ষতবিক্ষত মরদেহ পড়ে আছে এমন খবর পেয়ে গর্জনিয়া ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার করে। ওই যুবকের বিরুদ্ধে নাইক্ষংছড়ি থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে নিজেদের গ্রুপে বনিবনা না হওয়ায় সংঘর্ষে তিনি মারা গেছেন।

এরপরও কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে তা উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে।

এদিকে, স্থানীয়রা জানান, আবদুল মোতালেব গভীর বনে শূকর শিকার করে পাহাড়ি এলাকার চাকমা, মুরং, বড়ুয়া ও রাখাইনদের কাছে বিক্রি করতো। সোমবার দিনগত রাতেও শূকর শিকারের কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন তিনি। স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আবদুল জব্বারও এমন তথ্য জানিয়েছেন।

সায়ীদ আলমগীর/এমএমজেড/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :