গরিবের হক নষ্টকারীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি মেয়রের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৯:১৯ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯
ফাইল ছবি

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম চামড়ার কারসাজির সঙ্গে জড়িত থেকে যারা গরিব-দুঃখী মানুষের মুখের হাসি কেড়ে নিয়ে এবং সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে নগর ভবনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। মেয়র বলেন, চামড়ার দেশীয় বাজার ও আন্তর্জাতিক বাজার যাচাই করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এসব ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া দরকার। এতিম ও গরিব মানুষের ভাগ্য নিয়ে যারা ছিনিমিনি করেছে তারা সরকার ও জনগণের শত্রু। আমরা মুসলমান হিসেবে পবিত্র ঈদুল আযহা বা কোরবানির ঈদে আল্লাহকে রাজি খুশি করার জন্য কোরবানি করে থাকি আর এর চামড়ার মূল্য গরিব দু:খী মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেয়া হয়। পশুর চামড়া নিয়ে যারা এ ধরনের কাজ করেছে তাদের কারখানা যদি গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে থাকে তা হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

আমরা জন্মের পর থেকে দেখেছি গরুর চামড়া সব সময়ই এক হাজারের বেশি ছিল। হঠাৎ করে ঈদের দিন এ কুচক্রিমহল গরুর চামড়া দাম একশত টাকা থেকে চারশত টাকা করে কেনা শুরু করেন।

মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সরকার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে চামড়া বিদেশে রফতানি করার কথা বলার পর যারা এর বিরোধিতা করেছে তাদের বিরুদ্ধে যেন সরকার ব্যবস্থা নেয় এজন্য প্রধানমন্ত্রীর সৃষ্টি আকর্ষণ করছি। সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা যেন আন্তর্জাতিক বাজারে যাচাই করে চামড়ার সঠিক মূল্য গরিব ও এতিমদের মধ্যে বন্টন করে দেয়া হয়। এ জন্য সব মহলের সহযোগিতা চাই।

মেয়র বলেন, আমরা সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকেও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এর দাম ও কি পদ্ধতিতে এর প্রসেস করা হয় তা যাচাই করে দেখব।

আমিনুল ইসলাম/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :