ভিড় বাড়ছে সিলেট নগরীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে


প্রকাশিত: ০৮:২৫ এএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫

ঈদুল আজহার তৃতীয় দিনে সিলেটের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র মানুষের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে। নগর ও শহরতলির পার্ক ও পর্যটন কেন্দ্রে রোববার সকাল থেকে দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে।

তবে কোরবানির কারণে ঈদের দিন বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে মানুষের আনাগোনা ছিলো কম। সিলেট নগরীর প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত কাজীরবাজার সেতুতে এবার বিনোদন পিয়াসী মানুষের প্রচন্ড ভীড় দেখা গেছে।

সকাল থেকেই নগরের ওসমানী শিশু উদ্যান, বিমানবন্দর সড়কের সিলেট পর্যটন মোটেল, অ্যাডভেঞ্চার ওয়ার্ল্ড, টিলাগড় ইকোপার্ক গোলাপগঞ্জের ড্রিমল্যান্ড পার্কসহ বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ভিড় বাড়তে থাকে। বিশেষ করে শিশুদের পদচারণায় মুখর বিনোদন কেন্দ্রগুলো। অনেকে প্রিয়জনকে সঙ্গে নিয়ে ছুটছেন পর্যটন কেন্দ্রের দিকে।

বিনোদনের কেন্দ্র বিন্দু হয়ে উঠেছে সুরমা নদীর উপর নির্মিত কাজীর বাজার সেতুটি। নির্মল বাতাস আর মুক্ত নিঃশ্বাসের সুযোগ নিতে ভিড় করছেন শত শত পর্যটক। ব্রিজের দুই পাশে সারিবদ্ধ পর্যটকদের ভিড় আর আড্ডায় মুখর হয়ে উদ্বোধন অপেক্ষায় থাকা সেতুটি।

সিলেট এমএজি ওসমানী শিশু পার্ক সূত্রে জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত পার্ক খোলা থাকবে। শনিবার থেকে দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে। বিকেলের দিকে দর্শনার্থীদের চাপ বেড়ে যায়।

এদিকে, ড্রিমল্যান্ড পার্কেও রোববার সকাল থেকে ভিড় শুরু হয়েছে। বিশেষ করে এখানকার ওয়ার্টারপার্ক বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

দর্শনার্থী শামসুল হক বলেন, ঈদের দিন ও পরদিন ব্যস্ততা থাকায় আজ ছেলে-মেয়েকে নিয়ে এমএজি ওসমানি শিশু পার্কে ঘুরতে এসেছি। বাচ্চারা বিভিন্ন রাইড চড়ে মজা করছে।

ছামির মাহমুদ/এআরএ/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]