লালমনিরহাটে আরও একজন গ্রেফতার, প্রধান আসামি রিমান্ডে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাট
প্রকাশিত: ০১:২০ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০২০

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় শহীদুন্নবী জুয়েল নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় আরও একজনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) ভোরে বুড়িমারী বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার নাম আফিনুর রহমান (২৪)। তিনি বুড়িমারী ইউনিয়নের বাসিন্দা।

লালমনিরহাট জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক জানান, গ্রেফতার আফিনুরকে দুপুরে লালমনিরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৩ এ হাজির করা হবে।

এদিকে হত্যা মামলার প্রধান আসামি আবুল হোসেনের (৪৫) পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে লালমনিরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৩ এর বিচারক ফেরদৌসী বেগম এ রিমান্ড মন্জুর করেন।

এর আগে ঢাকা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার আবুল হোসেনকে লালমনিরহাট আদালতে তুলে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মাহমুদুন্নবী।

এ ঘটনায় দায়ের হওয়া পৃথক তিনটি মামলায় এখন পর্যন্ত প্রধান আসামিসহ ৩২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৮ জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার ৯ আসামির তিনদিনের রিমান্ড ও প্রধান আসামির পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

নিহত শহীদুন্নবী জুয়েল রংপুর শহরের শালবন মিস্ত্রিপাড়া এলাকার আব্দুল ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে। তিনি রংপুর ক্যান্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র। গত বছর চাকরিচ্যুত হওয়ার পর তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন।

গত বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী বাজারের বাসকল এলাকায় শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

রবিউল হাসান/আরএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]