রাত পোহালেই কেশবপুরে নৌকা-ধানের শীষের লড়াই

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০২:২৮ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রাত পোহালেই যশোরের কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন। রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) প্রথমবারের মতো কেশবপুর পৌর নাগরিকেরা নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনের এ ধরনের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন কেশবপুর পৌরসভার ভোটাররা।

শুক্রবার এই পৌরসভার প্রচার প্রচারণা শেষ হয়েছে। শেষ দিনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলর প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ছিল জমজমাট। মিছিল, স্লোগান, সমাবেশ ও পথসভায় মুখরিত ছিল কেশবপুর পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড।

প্রার্থীরা তাদের নিজ নিজ দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে ভোট পাওয়ার আশায় ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়েছেন। ভোটারদেরকে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের প্রতিশ্রুতি ও নাগরিক সুযোগ-সুবিধা দিয়ে ভোট চাইতে দেখা গেছে তাদের।

কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৩ জন, ৩টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পৌর মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র রফিকুল ইসলাম নৌকা, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ বিশ্বাস ধানের শীষ ও ইসলামী আন্দোলন মনোনীত প্রার্থী আব্দুল কাদের হাতপাখা নিয়ে লড়ছেন। মেয়র পদে তিন প্রার্থী থাকলেও মূল লড়াই নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যে হবে বলে সাধারণ ভোটাররা মনে করছেন।

কেশবপুর পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার ৭২৫ জন। যার মধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ১৮৫ ও নারী ভোটার ১০ হাজার ৫৪০ জন।

কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার এমএম আরাফাত হোসেন জানান, কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

মিলন রহমান/এফএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]