হাসপাতালে ভর্তি বৃদ্ধ মারামারি মামলার আসামি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মুন্সিগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:৩০ পিএম, ০৫ মে ২০২১

মুন্সিগঞ্জে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বৃদ্ধ সামসুল হক সরকারকে (৬২) সহিংসতার মামলার আসামি করা হয়েছে। এ নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন অসুস্থ ওই বৃদ্ধ।

জানা গেছে, সদর উপজেলার চরকেওয়ার খাসকান্দি এলাকার এই বাসিন্দা গত ১৪ এপ্রিল থেকে ২ মে পর্যন্ত শহরের থানারপুল এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। অথচ তাকে গত ২৩ এপ্রিল চরকেওয়ার ইউনিয়নে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনার মামলায় আসামি করা হয়েছে।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ এপ্রিল আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চরকেওয়ার ইউনিয়নে স্থানীয় দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় দু’পক্ষ থেকেই পৃথক দুটি মামলা করা হয়। এক পক্ষের মিনারা বেগমের বাদী হয়ে করা মামলায় সামসুল হককে ৭৫নং আসামি করা হয়েছে। অথচ ঘটনার দিন তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

হাসপাতালের নথিপত্রে দেখা যায়, পায়ে ইনফেকশন (সংক্রমণ) জনিত কারণে অস্ত্রোপচার ও চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন সামসুল হক।

jagonews24

সামসুল হকের ছেলে শাকিল বলেন, আমার বাবা বৃদ্ধ মানুষ। দীর্ঘদিন যাবত হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তিনি কোনোভাবেই মারমারির ঘটনার সাথে জড়িত নন। মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার জন্যই এ কাজ করা হয়েছে। আমরা পুলিশ সুপারের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

এ বিষয়ে মামলার বাদী মিনারা বেগমের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে ওই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. ফরিদুজ্জামান জানান, মামলার বিষয়টি তদন্ত চলছে। সামসুল হক হাসপাতালে ভর্তি থাকার প্রামাণিক কাগজপত্র আমাদের দিতে পারলে সেক্ষেত্রে তার বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরাফাত রায়হান সাকিব/এফএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]