সিংড়ায় সড়কের পাশের গাছ কেটে নিচ্ছেন আ.লীগ নেতা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৬:১২ এএম, ০৬ মে ২০২১

নাটোরের সিংড়া উপজেলা চামারী ইউনিয়নের গোটিয়া এলাকায় প্রায় এক কিলোমিটার সড়কের দুইপাশের শতাধিক গাছ কেটে নিয়েছেন ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতালেব হোসেন। গত তিন-চার দিন ধরে ওই গাছ কাটছেন তিনি।

বন বিভাগ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, বন বিভাগের সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির আওতায় চামারী ইউনিয়নের গোটিয়া কাঁচা রাস্তার দুইধারে দুই শতাধিক ইউক্যালিপটাস গাছ লাগানো হয়। কিছু গাছ মরে গেছে। বাকিগুলো কাটার সময় এখনো হয়নি। সড়কের দুইপাশের গাছগুলো বড় হতেই নজর পড়ে আওয়ামী লীগ নেতা মোতালেব হোসেনের।

এলাকাবাসী দেখেন, হঠাৎ করে মোতালেব হোসেনে গাছগুলো কেটে বিক্রি করে দিচ্ছেন।

সরেজমিনে ওই সড়কে গিয়ে দেখা গেল, শ্রমিকেরা সড়কের পাশের গাছ কেটে ভ্যানে তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে কাটা গাছের গোড়া পড়ে আছে। গাছ কাটছিলেন আটজন শ্রমিক। দুই শ্রমিক কাটা গাছগুলো ভ্যানে করে সরিয়ে নিচ্ছিলেন।

গাছ বহনকারী ভ্যানচালক আলী হোসেন জানান, আওয়ামী লীগ নেতা মোতালেব হোসেন গাছগুলো কেটে বিক্রি করছেন। তারা শুধু গাছগুলো বহন করে স্থানীয় স মিলে নিয়ে যাচ্ছেন। তিন-চারদিন ধরে ছোটবড় শতাধিক গাছ কাটা হয়েছে।

jagonews24.com

জানতে চাইলে অভিযুক্ত মোতালেব হোসেন বলেন, ‘আমরা নিজেরাই সরকারি রাস্তায় ইউক্যালিপটাস গাছগুলো লাগিয়েছিলাম। নিজেদের প্রয়োজনে গাছগুলো কেটে নিচ্ছি। তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) বা বন বিভাগকে জানানোর প্রয়োজন মনে করছি না।’

চামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম বলেন, ‘সামাজিক বনায়নের গাছ অন্য কারও কাটার সুযোগ নেই। তিনি কিভাবে গাছগুলো কাটছে, আমার জানা নেই।’

এ প্রসঙ্গে সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সামিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি গাছ কাটার অভিযোগ পেয়ে লোক পাঠিয়েছিলাম। গাছ যেই লাগাক সড়কের মধ্যে বা সড়কের জায়গায় পড়লে তা সড়কের। এ গাছ কেউ কাটতে পারবে না। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

রেজাউল করিম রেজা/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]