বিধিনিষেধেও চলছে মোটরসাইকেল, গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৪:২৮ পিএম, ২৬ জুলাই ২০২১

করোনা নিয়ন্ত্রণে সারাদেশে চলছে কঠোর বিধিনিষেধ। সড়কে পরিবহন বন্ধ থাকায় দৌরাত্ম্য বেড়েছে মোটরসাইকেলের। ফলে অতিরিক্ত ভাড়ায় নিজ নিজ গন্তব্যে যেতে হচ্ছে যাত্রীদের।

সোমবার (২৬ জুলাই) দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় এমন চিত্র দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, যাত্রীর জন্য সাইনবোর্ড মোড়ে অবস্থান করছেন মোটরসাইকেল চালকরা। দূর-দূরান্তে যেতে যাত্রীরাও মোটরসাইকেলের সাহায্য নিচ্ছেন। ভাড়া নিয়ে নাখোশ যাত্রীরা। মোটরসাইকেল চালকরা নিয়মিত ভাড়ার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া দাবি করছেন। ফলে বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছতে হচ্ছে যাত্রীদের।

এ প্রতিবেদকের কাছে সাইনবোর্ড থেকে নরসিংদী পর্যন্ত এক হাজার ২০০ টাকা ও কুমিল্লার দাউদকান্দি পর্যন্ত ৫০০ টাকা ভাড়া চান মো. ইমন ও কবির হোসেন নামের দুই মোটরসাইকেল চালক।

jagonews24

আলমগীর নামের এক যাত্রী বলেন, বাস বন্ধ থাকায় দূরে কোথাও যেতে মোটরসাইকেল ছাড়া বিকল্প কিছুই নেই। নরসিংদীর পাঁচদোনা পর্যন্ত যাব। মোটরসাইকেল চালকরা ৩০০ টাকার ভাড়া এখন চাচ্ছেন এক হাজার ২০০ টাকা।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ‘বিশেষ প্রয়োজনে মোটরসাইকেল ব্যবহার করা যাবে। কিন্তু যাত্রীবাহী মোটরসাইকেল চলার কোনো অনুমতি নেই। যাত্রীবাহী মোটরসাইকেল চলাচল করলে আটক করে মামলা দেয়া হবে।’

এসকে শাওন/আরএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]