ফেসবুক লাইভে স্ত্রীকে খুন করা সেই স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০১:১২ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২১

ফেসবুক লাইভে স্ত্রী হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলায় স্বামী ওবায়দুল হক টুটুলের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) ফেনীর জেলা ও দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছা বেগমের আদালত আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ওবায়দুল হক টুটুল ফেনী শহরের বারাহিপুর এলাকার গোলাম মাওলা ভূঁঞার ছেলে।

পারিবারিক কলহের জেরে গত বছরের ১৫ এপ্রিল ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রী তাহমিনা আক্তারকে কুপিয়ে হত্যা করে ওবায়দুল হক টুটুল। ওইদিনই তাহমিনার বাবা সাহাব উদ্দিন বাদী হয়ে ফেনী মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন।

আদালত সূত্র জানায়, মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) আলোচিত এ হত্যা মামলার যুক্ততর্ক উপস্থাপন করেন পিপি হাফেজ আহাম্মদ ও বাদীপক্ষের আইনজীবী শাহজাহান সাজু। আসামি পক্ষের যুক্তিতর্কে অংশ নেন অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার। যুক্তিতর্ক শেষে বৃহস্পতিবার টুটুলের মুত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১১ নভেম্বর মামলার একমাত্র আসামি টুটুলকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন ফেনী মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার ইমরান হোসেন। ১৫ ডিসেম্বর চার্জ গঠনের পর চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারি শুরু হয় স্বাক্ষ্যগ্রহণ। মামলায় ১৩ জনের স্বাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

রায়ের পর মামলার বাদী গৃহবধূর বাবা সাহাব উদ্দিন জানান, আদালতের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। রায় দ্রুত কার্যকর করা হোক এখন এটাই প্রত্যাশা।

আসামি পক্ষের আইনজীবী আবদুস সাত্তার বলেন, একমাত্র আসামির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দির উপর ভিত্তি করে রায় ঘোষণা করা হয়েছে। আমরা এ রায়ে ক্ষুব্ধ। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

নুর উল্লাহ কায়সার/ এএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]