স্ত্রী-সন্তানদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৯:৫৯ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২১

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় স্ত্রী-সন্তানদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মো. মোবারক হোসেন নামের এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি। মো. মোবারক হোসেন উপজেলার বিলমান্দলা গ্রামের মৃত আয়নদ্দিন ফকিরের ছেলে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি একজন অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ও আলফাডাঙ্গা উপজেলা বিআরডিবির নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান। আমার বেপারোয়া-লোভী সন্তান ও স্বার্থপর সহধর্মিণীর অত্যাচারে প্রাণের ভয়ে দুইটি বাড়ি থাকা সত্ত্বেও এ বৃদ্ধ বয়সে পালিয়ে জীবন-যাপন করতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, আলফাডাঙ্গা বাজারে আমার একটি গুদাম ঘর আছে। আমার এক ছেলে আশরাফুজ্জামান রঞ্জু গুদাম ঘরটি নিজের করে নেওয়ার জন্য সিটি ব্যাংক আলফাডাঙ্গা শাখার তিনটি এবং সোনালী ব্যাংক আলফাডাঙ্গা শাখার সাতটি চেকের পাতা কৌশলে চুরি করে। এসব চেকে বিভিন্ন অংকের টাকা লিখে আমার স্বাক্ষর জাল করে চেক ডিসঅনার পূর্বক আমার নামে দুটি উকিল নোটিশ দেয়।

পরে গত ২০ মে আলফাডাঙ্গা থানায় চেক হারানোর সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করি এবং আদালতে আশরাফুজ্জামান রঞ্জুর নামে একটি অভিযোগ করি। এ মামলায় আশরাফুজ্জামান রঞ্জু পলাতক থেকে আমার স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে পক্ষে নেয়। পারিবারিক বিষয় নিয়ে আমার বৃদ্ধ নিঃসন্তান ভাই সামচুল আলমকে খুন করার জন্য রামদা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

সংবাদ সম্মেলনে তার ছোট ভাই সামচুল আলম, বড় ছেলে আরিফুজ্জামান মিটু ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিতি ছিলেন।

এন কে বি নয়ন/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]