টাঙ্গাইলে ভবনে বোমাসদৃশ বস্তু রেখে চাঁদা দাবি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:০৪ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০২১

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে নির্মাণাধীন ভবনে বোমাসদৃশ বস্তু রেখে ও চিঠির মাধ্যমে লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করলে বাসার মালিকের ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে ওই চিঠিতে। এমন তথ্য পেয়ে পুলিশ ওই বাড়ির চারপাশ ঘিরে রেখেছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকালে উপজেলার নন্দনপুর বাজার এলাকায় রাজ্জাক মিয়া লিটুর বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

গোপালপুর থানার ওসি (তদন্ত) মামুন ভূঁইয়া জানান, আব্দুর রাজ্জাক মিয়া লিটু ভবন নির্মাণ করছেন। পাশের একটি টিনের ঘরে রিপন আহম্মেদ, ঝর্না বেগম ও তার আম্মা রেহেনা পারভীন বসবাস করেন। সকালে রেহেনা পারভীন নির্মাণাধীন বাসার সামনে গিয়ে বোমাসদৃশ বস্তু দেখতে পান। পরে তাদের থাকার ঘরের সামনে দুটি চিঠি দেখতে পান। চিঠিতে লেখা তার ছেলে বহুতল ভবন নির্মাণ করছেন। এ কারণে তাকে এক লাখ টাকা চাঁদা ধার্য করা হয়েছে। টাকা না দিলে রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে বোমাটি বিস্ফোরণ ও বাসার মালিকের ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।

jagonews24

চিঠিতে জানানো হয়, রেখে যাওয়া বোমাটি দুইটি বাস গাড়ি ধ্বংস করার ক্ষমতা রয়েছে। নির্দিষ্ট জায়গা টাকা দিয়ে না আসলে রাত ১২টার পর রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে বোমাটি বিস্ফোরণ করা হবে।

রেহেনা পারভীনের ভাতিজা আল মাসুদ জানান, বিষয়টি পৌর মেয়রসহ পুলিশকে জানালে তারা বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। কোনো কিশোর গ্যাং অথবা মাদক সেবীরা এ কাজ করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওসি তদন্ত আরও বলেন, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। ঢাকা থেকে বোম ডিসপোসাল টিম আসার পর বোমাসদৃশ বস্তুটি নিয়ে কাজ শুরু হবে।

আরিফ উর রহমান টগর/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]