কুড়িগ্রামের ২৬ ইউপিতে বিজয়ী হলেন যারা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ১২:০০ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে কুড়িগ্রামের সদর, ফুলবাড়ী ও নাগেশ্বরী উপজেলার ২৭টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ শেষে ২৬টি ইউনিয়নের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার (২৮ নভেম্বর) ভোট গণনা শেষে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা এ ফলাফল ঘোষণা করেন। একটি ইউনিয়নের ফলাফল এখনও ঘোষণা করা হয়নি।

জেলা নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা গেছে, কুড়িগ্রাম সদরের কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নে একজনের প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণার পর ভোটের দুদিন আগে ওই ইউনিয়নে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী রেদওয়ানুল হক দুলাল। পরে আব্দুল হক তার প্রার্থীতার বৈধতা নিয়ে আদালতে যান।

সদরের বাকি ছয় ইউনিয়নের মধ্যে বেলগাছা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী লিটন মিয়া, মোগলবাসা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এনামুল হক, পাঁচগাছি ইউনিয়নে হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল বাতেন সরকার, হলোখানা ইউনিয়নে লাঙল প্রতীকের প্রার্থী রেজাউল করিম, ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর রহমান এবং ঘোগাদহ ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মালেক বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া যাত্রাপুর ইউনিয়নের চর ভগবতিপুর এলাকার ঝুনকার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনায় ওই ইউনিয়নের ফলাফল এখনও ঘোষণা করা হয়নি।

এদিকে জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে নাওডাঙ্গা ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী হাসেন আলী, ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী হারুণ-অর-রশিদ, ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী মো. আলী শেখ, বড়ভিটা ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আতাউর রহমান মিন্টু, শিমুলবাড়ী ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী শরিফুল ইসলাম সোহেল ও কাশিপুর ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী মনিরুজ্জামান মানিক নির্বাচিত হয়েছেন।

নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুজ্জামান দীপ মন্ডল, রামখানা ইউনিয়নের জাতীয় পার্টির প্রার্থী জালাল উদ্দিন, সন্তোষপুরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী লিয়াকত আলী লাকু, বেরুবাড়িতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. সোলায়মান আলী, নুনখাওয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আমিনুল ইসলাম, কেদার ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থী আ. খ. ম. ওয়াজিদুল কবির রাশেদ, কচাকাটায় জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. সাহাদত হোসেন মন্ডল, হাসনাবাদ ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির প্রার্থী আলহাজ মো. নুরুজ্জামান সরকার, বামনডাঙ্গায় মোটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আসাদুজ্জামান রনি, বল্লভের খাস ইউনিয়নে চশমা প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এস এম আব্দুর রাজ্জাক, কালিঞ্জে মোটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী রিয়াজুল হক প্রধান, ভিতরবন্দ ইউনিয়নে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব শফিউল আলম শফি এবং নারায়নপুর ইউনিয়নে চশমা প্রতীকের প্রার্থী মো. মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম রাকিব ফলাফলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ২৭টি ইউনিয়নের মধ্যে যাত্রাপুর ইউনিয়নের চর ভগবতিপুর এলাকার ঝুনকার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনায় ওই ইউনিয়নের ফলাফল এখনও ঘোষণা করা হয়নি। অবশিষ্ট ২৬টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে।

মো. মাসুদ রানা/ইউএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]