দৌলতদিয়ায় গাড়ির অপেক্ষায় ফেরি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ১২:০২ পিএম, ২৭ জুন ২০২২

আজও ফাঁকা দেশের দক্ষিণাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া ঘাট। যানবাহনের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে আছে ফেরি। সোমবার (২৭ জুন) বেলা ১১টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় এমন চিত্র দেখা যায়।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবহার করে নদী পার হয়েছে ঢাকামুখী ২ হাজার ৭১০টি যানবাহন। এরমধ্যে যাত্রীবাহী পরিবহন ৪৫০টি, পণ্যবাহী ট্রাক ১ হাজার ১২৯টি, ছোট গাড়ি ১ হাজার ৬৯টি ও মোটরসাইকেল ৫৯টি।

ভোগান্তি ও অপেক্ষা ছাড়াই মুহূর্তের মধ্যে ফেরির নাগাল পেয়ে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবহারকারী যাত্রী ও যানবাহনের চালকরা। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কারণে তাদের ভোগান্তি লাঘব হওয়ায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে।

যাত্রী ফরিদুর রহমান ও রাসেল বলেন, আগে ফেরিতে ওঠার জন্য সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষায় থাকতেন। আর এখন গাড়ির জন্য ফেরি অপেক্ষায় আছে। পুরো উল্টো চিত্র। তাদের দীর্ঘ দিনের ভোগান্তি দূর হয়েছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কারণে।

jagonews24

পণ্যবাহী ট্রাকচালক ইমরান আলী বলেন, দৌলতদিয়ায় এখন তাদের সিরিয়ালে থাকতে হচ্ছে না। এতে করে সময় মতো মালামাল পরিবহন করতে পারছেন। পার্টির কথাও শুনতে হচ্ছে না।

গোল্ডেন লাইনের চালক দুলাল শেখ বলেন, গত কয়েকদিন আগেও দৌলতদিয়ার সড়কে যানবাহনের লম্বা সিরিয়াল ছিল। কিন্তু আজ দু’দিন কোনো সিরিয়াল নেই। এতে তাদের সময় কম লাগছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট সূত্রে জানা যায়, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ফলে ভোগান্তি কমেছে দৌলতদিয়ায়। সিরিয়ালে নেই কোনো যানবাহন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৭১০টি গাড়ি পারাপার হয়েছে। বর্তমানে এরুটে ছোট বড় ২১টি ফেরি চলাচল করছে।

বিআইডব্লিউটিসি ডিজিএম শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ বলেন, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় যানবাহনের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। তবে যানবাহন ঠিকই পারাপার হচ্ছে। কিছুদিন না গেলে বোঝা যাবে না এ রুটে কেমন হবে গাড়ির সংখ্যা।

রুবেলুর রহমান/এফএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]