ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইউপি সদস্যের খননযন্ত্রে কাটা হচ্ছিল পাহাড়!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০২২
ভ্রাম্যমাণ আদালত আসার আগে খননযন্ত্রে পাহাড় কাটার চিত্র

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় পাহাড় কাটার খবরে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় কাউকে না পেয়ে পাহাড় কাটার কাজে ব্যবহৃত খননযন্ত্র জব্দ করা হয়।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের পাথারিয়াদ্বার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্জিব সরকার। জব্দ করা খননযন্ত্র স্থানীয় ইউপি সদস্য মুক্তার হোসেনের বলে জানিয়েছেন তিনি।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সঞ্জিব সরকার বলেন, পাহাড় কাটার খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করি। কিন্তু এর আগেই পালিয়ে যায় জড়িত সবাই। সেখানে গিয়ে পাহাড় কাটার কাজে ব্যবহৃত খননযন্ত্র পাওয়া যায়। সেটি জব্দ করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে খনন যন্ত্রের মালিক গোপীনাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মুক্তার হোসেন। যেহেতু জড়িত কাউকে উপস্থিত পাওয়া যায়নি, তাই আমরা তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নিতে পারিনি। এ ঘটনায় বুধবার ইউপি সদস্য মুক্তার হোসেনসহ জড়িতদের আসামি করে মামলা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তবে ইউপি সদস্য মুক্তার হোসেন দাবি, খননযন্ত্রের মালিক তিনি নন। এসব বিষয়ে তিনি জানেনও না।

আবুল হাসনাত মো. রাফি/এসজে/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।