খালাতো ভাইয়ের প্রক্সি দিতে এসে আটক, তরুণের ১ বছরের কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২
দণ্ডপ্রাপ্ত আলমগীর হোসেন

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এসএসসি পরীক্ষায় খালাতো ভাইয়ের প্রক্সি দিতে এসে ধরা পড়েছেন আলমগীর হোসেন (১৮) নামে এক তরুণ। পরে তাকে এক বছরের দণ্ডাদেশ দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার শহীদ জয়নাল আবেদীন সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গণিত পরীক্ষায় এ ঘটনা ঘটে।

দণ্ডপ্রাপ্ত আলমগীর হোসেন সূবর্ণচর উপজেলার ২ নম্বর চরবাটা ইউনিয়নের চরপানা উল্যাহ গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে। তিনি স্থানীয় সৈকত ডিগ্রি কলেজের এবারের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সূবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চৈতি সর্ববিদ্যা। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে জুবলি হাবিবুল্লাহ মিয়ারহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী মো. আবদুর রহমানের স্থলে পরীক্ষার হলে তার খালাতো ভাই আলমগীর হোসেনকে পরীক্ষারত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে প্রবেশপত্র ও রেজিস্ট্রেশন কার্ড যাচাই করে প্রক্সি দেওয়ার প্রমাণ মেলে।

তিনি আরও বলেন, এর আগের দুই পরীক্ষায়ও প্রক্সি দেওয়ার কথা ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে স্বীকার করেন অভিযুক্ত আলমগীর। পরে তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে প্রকৃত পরীক্ষার্থী আবদুর রহমানকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এমআরআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।