১৩ দিন ধরে অনশন : ৩ শিক্ষক ডেঙ্গু আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০২ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৯

তৃতীয় ধাপে জাতীয়করণ থেকে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা টানা ২৭ দিন ধরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান করছেন। অনশন করছেন ১৩ দিন ধরে। অবস্থান ও অনশনে এখন পর্যন্ত মোট ২১১ জন অসুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে তিনজন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মহাসচিব মো. কামাল হোসেন এবং সভাপতি মো. মামুনুর রশিদ খোকন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আন্দোলনকারীরা জানান, গত ১৬ জুন থেকে তারা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান নেন। টানা অবস্থান করেন ২৮ জুন পর্যন্ত। এরপর ২৯ জুন প্রতীকী অনশন করেন। এর পরবর্তী তিন দিন অনশন করেন তারা। এরপরও তাদের দাবি-দাওয়া মেনে নেয়া না হলে, ৩ জুলাই থেকে আমরণ অনশন শুরু করেন। শুক্রবার (১২ জুলাই) পর্যন্ত তা অব্যাহত আছে। এসব কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে তিনজন ডেঙ্গু আক্রান্তসহ ২১১ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়েছেন।

শুক্রবার সকালে গিয়ে দেখা যায়, ফুটপাতে পলিথিন দিয়ে ভেতরে শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষিকা অনশন করছেন। এ বিষয়ে শিক্ষক-শিক্ষাদের বক্তব্য, যখন-তখন বৃষ্টি আসছে। বের হয়ে লাভ নেই। অল্প কিছুক্ষণ পরই আবার ভেতরে চলে আসতে হচ্ছে। তাই ভেতরে বসেই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

সংগঠনটির সহ-সভাপতি ফিরোজ উদ্দিন বলেন, ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সব উপজেলা ও জেলায় অবস্থিত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের কথা জানান। নিজ কার্যালয়ের চামেলী হলে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০১২ সালের ২৭ মে'র আগের বেসরকারি বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণের আওতায় আনা হবে। তাই বাংলাদেশে কোনো বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকবে না। তিন ধাপে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হবে।

ফিরোজ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পরও মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের অবহেলার কারণে আমরা জাতীয়করণ থেকে বঞ্চিত রয়েছি। ২০১২ সালের ২৭ মে'র আগের বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

পিডি/এমএসএইচ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :