ঈদের পর তিন নাটকে নাবিলা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২০ পিএম, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছোট পর্দার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী নাবিলা ইসলাম। সারাবছরই একক-ধারাবাহিকে সমানে ব্যস্ত থাকেন তিনি। গেল ঈদে তার অভিনীত ১০টি নাটক বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হয়েছে। ‘এক পায়ে জুতা অন্য পা খালি’, ‘সারপ্রাইজ’, ‘গোলমেলে কাঠমুন্ডু’সহ কয়েকটি নাটক দর্শকের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলে।

ঈদের ছুটিয়ে কাটিয়ে গেলো সোমবার থেকে আবারো ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন তিনি। সিঙ্গেল নাটক দিয়ে ঈদের পর অভিনয় শুরু করছেন তিনি। এরই মধ্যে তিনটি নাটকে অভিনয় করেছে ফেলেছেন। এর মধ্যে একটি নাটকের নাম 'কবি কবিতা ও সজারু'। এটি নির্মাণ করছেন সজিব মাহমুদ। এরপর আরও দুটি নাটকের কাজ শেষ করেছেন তিনি। রাশেদ রাহা পরিচালিত 'মিস্টার হ্যান্ডসাম' নাটকে নাবিলার বিপরীতে রয়েছেন মাজনুন মিজান।

এদিকে আজ রাজধানীর উত্তরায় একটি শুটিং বাড়িতে 'শর্ট সার্কিট' নামে একটি নাটকের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তিনি। মাহমুদ হাসান রানা পরিচালিত এ নাটকে নাবিলার বিপরীতে রয়েছেন মিশু সাব্বির।

নাবিলা বলেন, ‘ঈদের ছুটি কাটিয়ে আবারও ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছি। একক নাটকের পাশাপাশি ধারাবাহিকগুলো নিয়ে এখন ব্যস্ত থাকতে হবে। প্রচার চলতিসহ কয়েকটি নতুন ধারাবাহিকের কাজ হাতে রয়েছে।’

নাবিলার উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকগুলো হলো মাসুদ সেজানের ‘খেলোয়াড়’, ইমরাউল রাফাতের ‘সিনেমাটিক’, সাগর জাহানের ‘ডি-২০’, রাজু খানের ‘মধ্যবর্তিনী’, রায়হান খানের ‘বৃহস্পতি তুঙ্গে’, গৌতম কৌরির ‘বেসিক আলী’ ও নজরুল ইসলাম রাজুর ‘ঘরে-বাইরে’। অভিনয়ের পাশাপাশি উপস্থাপনাও করছেন নাবিলা ইসলাম। মাছরাঙা টেলিভিশনে ‘সৌন্দর্য চর্চা’ শিরোনামের একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গেল দু’বছর এই একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছি। অভিনয়ে ব্যস্ত থাকার কারণে উপস্থাপনার জন্য পর্যাপ্ত সময় পাওয়া যায় না। প্রচার চলতি অনুষ্ঠানটি সবার কাছে বেশ গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে।

আইএন/এমএবি/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]