আবারও গুলজার-খোকনের নেতৃত্বে পরিচালক সমিতি

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩৪ পিএম, ২৬ জানুয়ারি ২০১৯

অবশেষে জানা গেল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল। সমিতির সভাপতি পদে মুশফিকুর রহমান গুলজার ও মহাসচিব পদে বদিউল আলম খোকন পুননির্বাচিত হয়েছেন।

শুক্রবার, ২৫ জানুয়ারি সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দেন পরিচালক সমিতির সদস্যরা। মোট ৩৬২ ভোটারদের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৩১৯ জন। সেখান থেকে ৩০০টি বৈধ ভোট হিসেবে গৃহীত হয়।

নির্বাচনে দুটি প্যানেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে গুলজার-খোকন প্যানেল ও বাদল-বজলুর রাশেদ প্যানেল। সমিতির ১৯টি পদের মধ্যে ১৪টি পদে জয়ী হয়েছে গুলজার-খোকন প্যানেল।

প্রাপ্ত বৈধ ভোটের মধ্যে সভাপতি পদে গুলজার পেয়েছেন ১৮৩ ভোট, তার নিকটতম প্রার্থী বাদল খন্দকার পেয়েছেন ১০৯টি ভোট।

অন্যদিকে মহাসচিব পদে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর চেয়েও দ্বিগুণ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন খোকন। তিনি পেয়েছেন ১৫৭ ভোট, প্রতিদ্বন্দী দুই প্রার্থী সাফি উদ্দিন সাফি ও বজলুর রাশেদ চৌধুরী পেয়েছেন যথাক্রমে ৬৭ ও ৬৮ ভোট।

উপ-মহাসচিব পদে শাহীন সুমন নির্বাচিত হয়েছেন মাত্র ৩ ভোটের ব্যবধানে। তারই ঘনিষ্ঠ বন্ধু পল্লী মালেক প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে পেয়েছেন ১৪২ ভোট। শাহীন সুমন পেয়েছেন ১৪৫ ভোট। আর তাদের আরেক প্রতিদ্বন্দী রকিবুল আলম রাকিব পেয়েছেন মাত্র ৫ ভোট।

এবারের নির্বাচনে সম্পাদকীয়তে সর্বাধিক ভোট পেয়ে চমকে দিয়েছেন প্রথমবার নির্বাচনে আসা তরুণ নির্মাতা মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। আন্তর্জাতিক ও তথ্য প্রযুক্তি সচিব পদের জন্য তিনি সর্বোচ্চ ২৩০ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিপ্লব শরীফ পেয়েছেন ৬২ ভোট। আর সামগ্রিকভাবে সর্বোচ্চ ২৪৪ ভোট পেয়েছেন সদস্য পদে নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান।

শনিবার সকাল ৭টায় এই নির্বাচন কমিশনের প্রধান কমিশনার আবদুল লতিফ বাচ্চু আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতাদের এই সংগঠনে গত মেয়াদেও সভাপতি ও মহাসচিবের দায়িত্বে ছিলেন গুলজার-খোকন। পুনরায় নির্বাচিত হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় গুলজার বলেন, ‘প্রথমেই মহান আল্লাহ তাআলার কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। সততা ও নিষ্ঠা আছে যাদের তাদের তিনি নিরাশ করেন না। সকল ভোটারদের ধন্যবাদ ভোটের মাধ্যমে পুনরায় আমাদের দায়িত্ব দেয়ার জন্য। আশা করি আমরা বিগত বছরগুলোর মতো আগামীতেও সমিতির সদস্যদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারব।’

মহাসচিব পদে জয়ী হয়ে বদিউল আলম খোকন বলেন, ‘সদস্যরা আবারও আমাদের উপর আস্থা রেখেছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। যারা কাজ করে তাদেরই জয় হয়। বিজয়ী সবাইকে অভিনন্দন। যারা নির্বাচিত হননি তাদের জন্যও ভালোবাসা। সবাইকে নিয়ে সিনেমার সুদিন ফিরিয়ে আনতে কাজ করতে চাই।’

অন্যান্য পদে নির্বাচিতরা হলেন সহ-সভাপতি মনতাজুর রহমান আকবর, কোষাধ্যক্ষ মো. সালাহ্উদ্দিন, সাংগঠনিক সচিব কবিরুল ইসলাম রানা, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সচিব শাহিন কবির টুটুল, প্রচার প্রকাশনা ও দপ্তর সচিব মো. আনোয়ার সিরাজ।

নির্বাহী সদস্য পদে জয়ী হয়েছেন ছটকু আহমেদ, কমল সরকার, সোহানুর রহমান সোহান, মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, এম এ আওয়াল, আবদুস সামাদ খোকন, সাঈদুর রহমান সাঈদ, নূর মোহাম্মদ মনি, আবুল খায়ের বুলবুল ও ইলিয়াস ভূঁইয়া।

এলএ/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]