নির্বিঘ্নেই শেষ হলো অভিনয় শিল্পী সংঘের ভোটগ্রহণ

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০৯ পিএম, ২১ জুন ২০১৯

টেলিভিশন মাধ্যমের অভিনয় শিল্পীদের সংগঠন ‘অভিনয় শিল্পী সংঘ’ এর ২০১৯-২১ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। শুক্রবার (২১ জুন) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় অবস্থিত শিল্পকলা একাডেমিতে সকাল ৯টা ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটগ্রহন শেষ হয়েছে বিকেল ৫টায়।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এই নির্বাচনের নির্বাচন কমিশনার মাসুম আজিজ।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘নির্বিঘ্নে ‘অভিনয় শিল্পী সংঘ’ এর ২০১৯-২১ নির্বাচনের ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে বিকেল ৫ টায়। উৎসব মুখর পরিবেশে শিল্পীরা সারাদিন সকাল থেকে ভোট  দিয়েছে।’

মাসুম আজিজ জানান, শিল্পী সংঘের মোট ভোটার ৬০৮ জন। এর মধ্যে ৫১৮ ভোট পড়েছে। ভোট গণনা শুরু হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০টার মধ্যে প্রাথমিকভাবে নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হবে।

২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচনে মোট ২১টি পদে লড়ছেন ৫১ জন শিল্পী। ভোটার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৬শ’। এবার নির্বাচনে সভাপতি পদে লড়ছেন ৩ জন প্রার্থী। তারা হচ্ছেন-শহীদুজ্জামান সেলিম, তুষার খান ও মিজানুর রহমান। সহ-সভাপতির ৩টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন-আজাদ আবুল কালাম, আহসানুল হক মিনু, তানিয়া আহমেদ, ইউজিন ভিনসেন্ট গোমেজ, ইকবাল বাবু ও দিলু মজুমদার। এবার সাধারণ সম্পাদক পদে লড়বেন আহসান হাবিব নাসিম ও আবদুল হান্নান।

এছাড়া দু’টি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করছেন-আশরাফ কবীর, আনিসুর রহমান মিলন, আমিনুল হক আমিন, রওনক হাসান ও সুমনা সোমা। কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আগেই নির্বাচিত হয়ে আছেন লুৎফর রহমান জর্জ।

অর্থ-সম্পাদক পদে লড়ছেন-নূর এ আলম (নয়ন) ও মাঈন উদ্দিন আহমেদ (কোহিনূর)। দপ্তর সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন-আরমান পারভেজ মুরাদ, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, গোলাম মাহমুদ ও মেরাজুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সম্পাদক পদে-স্বাগতা, পাভেল ইসলাম ও রাশেদ মামুন অপু।

আইন ও কল্যাণ সম্পাদকের পদে লড়ছেন-শামীমা তুষ্টি, মম শিউলী (মমতাজ বেগম) ও শিরিন আলম। প্রচার ও প্রকাশনা পদের জন্য প্রাণ রায়, শফিউল আলম বাবু ও শহিদ আলমগীর। তথ্য প্রযুক্তি পদে মুলুক সিরাজ ও সুজাত শিমুল। এছাড়া কার্যনির্বাহী ৭টি পদের জন্য লড়াই করছেন সংগঠনটির মোট ১৮ জন সদস্য। 

এদিকে বুধবার (১৯ জুন) শেখ মো. এহসানুর রহমান, আবদুল্লাহ রানা ও নূর মুহাম্মদ রাজ্য বাদী হয়ে নির্বাচন নিয়ে বেশকিছু অনিয়মের অভিযোগ এনে দ্বিতীয় সহকারী আদালতে নির্বাচন স্থগিতের জন্য আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিনই নির্বাচন স্থগিতের নির্দেশ দেন আদালত। সিনিয়র সহকারী জজ মোহাম্মাদ শাফি এই আদেশ দিয়েছেন।

সেই সঙ্গে তিন নির্বাচন কমিশনার খায়রুল আলম সবুজ, বৃন্দাবন দাশ ও মাসুম আজিজ এবং শিল্পী সংঘের সর্বশেষ সভাপতি শহীদুল আলম সাচ্চুসহ আটজন বিবাদীকে ১৯ জুন থেকে আগামী সাতদিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

এরপর অভিনয় শিল্পী সংঘের নির্বাচন নিয়ে সংশয় দেখা দেয়। তবে নির্বাচন কমিশনার এমন কোনও নোটিশ পায়নি বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন মাসুম আজিজ।

এমএবি/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]