র‌্যাবের কার্যালয়ে গিয়ে ক্ষমা চাইলেন নোবেল

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:২৭ এএম, ২৫ মে ২০২০

দেশের লিজেন্ড শিল্পীদের দিয়ে অপমানজনক মন্তব্য করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন কণ্ঠশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেলকে। আর এই কারণে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান- ২ (র‍্যাব) এর কার্যালয়ে ডাকা হয়েছিল তাকে। অবশেষে নিজের ভুল স্বীকার করে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাইলেন এই গায়ক।

সম্প্রতি নোবেল ফেসবুকে এক পোস্টে লিখেছিলেন, ‘দু-বছর আগে জন্ম নিয়েছি আপনাদের ভালবাসা নিয়ে। দু-বছরে ফ্লপ হিট গানের সংখ্যা দুই। তোমার মনের ভেতর - অনুপম রায় (National Award winner) আগুনপাখি - শান্তনু মৈত্র (National Award winner)।

তোমাদের লেজেন্ড গত দশ বছর ধরে কয়টা ফ্লপ অথবা হিট রিলিজ করেছে কমেন্টস্ সেকশানে জানাও। থুক্কু বাংলাদেশে তো গত ১০ বছরে ভালো করে কেউ মিউজিকই করেনি। দাঁড়াও তোমার লেজেন্ডদের না হয় আমিই শিখাবো, কিভাবে ২০২০ সালে মিউজিক করতে হয়।’

এমন ফেসবুক পোস্ট দেয়ার পরেই সমালোচিত হয়েছেন নোবেল। দেশের লিজেন্ড শিল্পীদের অপমান করেছেন এই গায়ক। বিষয়টি একেবারেই মেনে নেয়ার মতো নয় বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নেটিজেনরা।

রোববার বিকেলে নোবেল তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। তিনি জানান এসব ছিলো তার ‘তামাশা’ নামের একটি গানের প্রচারণার জন্য। নোবেল লিখেছেন ‘আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে র‌্যাব-২ এর মনির জামান ভাইয়ের কাছে লিখিত বক্তব্য পেশ করেছি। সকলকে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা এবং ‘তামাশা’ গানটি শোনার আমন্ত্রণ।

পাশাপাশি র‍্যাবের এডিশনাল এসপি মনির জামানের একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন নোবেল। এতে এডিশনাল এসপি লিখেছেন, ‘সম্মানিত নেটিজেনস, ঈদ মোবারক। মি. নোবেলম্যানকে নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে, উনি আমাদের দেশের একজন সম্মানিত কণ্ঠশিল্পী। নোবেল তার নিজস্ব ফেসবুক পেজ Noble Man এ যা বলেছেন তার জন্য উনি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। আমরা র‍্যাব-২ এর পক্ষ থেকে ওনাকে ডেকেছি এবং উনি স্বেচ্ছায় আমাদের কাছে এসে ওনার উপরোক্ত বক্তব্যটি পেশ করেছেন।’

শুরুর দিকে গান গেয়েই সুনাম কুড়িয়েছিলেন নোবেল। কিন্তু গত বছর জাতীয় সংগীত নিয়ে বিতর্কিত এক মন্তব্য করে কলকাতা ও বাংলাদেশ দুই দেশের সংগীতপ্রেমীদের রোষানলের শিকার হন। এছাড়া এক কিশোরীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে নোবেলের বেশে কিছু নগ্ন ছবি প্রকাশ হয়। সেই কিশোরী নোবেলকে মাদকসেবী, নারীলোভী আখ্যা দিয়ে আবেগঘন স্ট্যাটাসও দেন। নোবেলের সঙ্গে প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কের নামে প্রতারণার অভিযোগও করেন সেই কিশোরী।

গত বছরের শেষের দিকে এমন বেশ কিছু সমালোচনা দিয়েই নিভে গেছিলেন নোবেল। অনেক ভক্তের ভালোবাসা হারিয়েছেন সেই সময়। এর পর থেকেই নিরবেই ছিলেন তিনি। অনেক দিন পরেই আবারও বিতর্কে দিয়েই জানান দিলেন নোবেল।

এমএবি/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]