বিরতির পর ফিরছেন রকস্টাররা, ১ অক্টোবর কনসার্ট

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০৯ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

করোনার ভয়াবহ প্রভাবের কারণে ২০২০ সালের প্রথম দিক থেকে গোটা পৃথিবীর মানুষ ঘরবন্দি হয়ে যায়। ভাইরাসটির সূত্রপাত চীন থেকে শুরু হয়ে ধীরে ধীরে ইউরোপ, আমেরিকা, এশিয়া, আফ্রিকাসহ পৃথবীর কোনায় কোনায় পৌঁছে যেতে খুব বেশি সময় লাগেনি।

অদৃশ্য এ ভাইরাসের কারণে সারা বিশ্বের মানুষেরাই আটকে যায় স্বাভাবিক জীবনযাপনে।

আশার কথা হলো, অবশেষে সব স্বাভাবিক হয়ে আসছে। আবারও পৃথিবী মুখরিত হয়ে উঠছে হাসি-গান ও আড্ডায়।

করোনা নিয়ন্ত্রণে আসায় বিশ্বের প্রায় সব দেশের মতো বাংলাদেশেও সিনেমা হল খুলছে, শুটিং চলছে। এমন সময় জানা গেছে, শুরু হচ্ছে ব্যান্ড তারকাদের কনসার্টও৷

দীর্ঘদিন ধরেই গৃহবন্দি হয়ে থাকা ব্যান্ড তারকাদের অনেকেই মানবেতর জীবন পার করেছেন। ব্যান্ড দলগুলোর আয়ের মূল উৎসই হচ্ছে লাইভ কনসার্ট। করোনার কারণে যা দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ ছিল। ব্যান্ডের এমন দুর্দশা নিয়ে অনেক ব্যান্ড তারকাই নিজেদের আক্ষেপের কথা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন।

এবার সেই কনসার্টে ফিরছে ব্যান্ডগুলো। সরকার কনসার্ট করার অনুমতি দেয়ায় আগামী ১ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশনাল হলে এর আয়োজন করা হয়েছে। ডান কেকের সৌজন্যে শুধু ভিআইপি টিকিট রাখা হয়েছে এখানে।

প্রতিটি টিকিটের মূল্য ধরা হয়েছে ২ হাজার টাকা। এছাড়া রেগুলার টিকিটের দাম ৩০০ টাকা, যা ইতোমধ্যে সব বিক্রি হয়ে গেছে।

কনসার্টে দেশের জনপ্রিয় বেশকিছু ব্যান্ড অংশ নেবে। যাদের মধ্যে রয়েছে আর্টসেল, শিরোনামহীন, আভয়ে-ড রাফা, নেমিসিস, সাভাগ্রে, ইনকোর এবং আরেকটা রক ব্যান্ডসহ আরও কিছু ব্যান্ড।

কনসার্টে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে শিরোনামহীন ব্যান্ডের কর্ণধার জিয়াউর রহমান জিয়া জাগো নিউজকে বলেন, ইতোমধ্যে কনসার্টে পারফর্ম করার অফিসিয়াল সব কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। আমরা এখন কনসার্টের অপেক্ষায় আছি। কারণ করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরে লাইভ কনসার্ট থেকে আমরা দূরে এবং অন্যরকম একটা জীবনের মধ্যে ছিলাম।

আশা করি আবার নতুন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে সবাই।

১ অক্টোবরের কনসার্টে অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে এভয়েড রাফারও। তবে তারা এখনো আয়োজক কমিটি থেকে অফিসিয়াল কোনো কাগজপত্র পায়নি। এ বিষয়ে এভয়েড রাফার দল নেতা রাফা জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা মুখে মুখে শুনেছি কনসার্টটিতে অংশগ্রহণের কথা। অফিসিয়ালি এখনো কোনো কথাবার্তা হয়নি। তবে আজকের মধ্যে সব কার্যক্রম সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে।’

এদিকে ব্যান্ড সংগীতপ্রেমীদের মধ্যে কনসার্টটি নিয়ে উৎসাহ শুরু হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন ব্যান্ড গ্রুপ থেকে টিকিট সংগ্রহ শুরু করেছেন তারা।

এমআই/এলএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]