সবাইকে মিশন এক্সট্রিম দেখার আমন্ত্রণ জানিয়ে যা বললেন শাকিব খান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫৫ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১

মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমা। গত শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) ৫০টির মতো সিনেমা হলে চলছে ছবিটি। এটি মুক্তি পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে। চলছে নিউইয়র্কেও। সেখানকার একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে স্থানীয় বাংলাদেশি প্রবাসীদের ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমা দেখার আমন্ত্রণ জানান নায়ক শাকিব খান।

ঢালিউডের জনপ্রিয় এ নায়ক বর্তমানে নিউইয়র্কে। সেখানে তিনি ঢালিউড ফিল্ম অ্যান্ড মিউজিক অ্যাওয়ার্ডসে সেরা নায়ক হিসেবে পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। ইউএসএনিউজ অনলাইনডটকম নামের একটি ফেসবুক পেজে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের ৪ ঘণ্টারও বেশি দীর্ঘ একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়। সেখানেই দেখা গেল ‘মিশন এক্সট্রিম’ দেখতে সবাইকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন শাকিব। 

উপস্থাপক দেবাশীষ বিশ্বাস নাম ঘোষণা করলে অ্যাওয়ার্ড নিতে মঞ্চে ওঠেন শাকিব। সবাইকে সালাম দিয়ে বলেন, ‘আসি আসি করে অবশ্য বহুদিন পার হয়ে গেল। এটলিস্ট ফাইনালি অ্যাওয়ার্ডটাও হাতে পেলাম। আমার স্পেশালি খুব ভালো লেগেছে। যখন শুনেছি ১৯ বছরের মেলা, ১৯তম মেলা, আমেরিকার মতো এমন একটা দেশে ঢালিউড অ্যাওয়ার্ড, বাংলা সিনেমার নামের ওপর একটা অ্যাওয়ার্ড ১৯ বছর ধরে চলছে, এটা সত্যি আমার জন্য বা আপনাদের জন্য, আমাদের চলচ্চিত্রের মানুষের জন্য এবং সব বাংলাদেশের মানুষের জন্য তো দারুণ একটি ব্যাপার।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন তো আমাদের সিনেমা ঢালাও করে আমেরিকায় রিলিজ হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ায় রিলিজ হচ্ছে, বড় বড় সব মহাদেশে রিলিজ হচ্ছে। আপনাদের এখানেও একটি সিনেমা রিলিজ হয়েছে। আই হোপ, সেদিন আর বেশি দূরে নয় যে আমরা এখান থেকে কেউ কল দিলে রিসিভ করে বলবো যে, নিউইয়র্কের সেল কেমন? টরেন্টোর কি অবস্থা? জ্যাকসন হাইটের কি অবস্থা?

একটা ছবি রিলিজ হয়েছে কিন্তু। মিশন এক্সট্রিম। সবাইকে এ ছবি দেখার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমি সবসময়ই চাই, শুধু আমি কেন, যারাই চেষ্টা করেছেন বাংলাদেশের সিনেমা, বাংলাদেশকে কাজের মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে; আমরা সবসময় সবাইকে সাপোর্ট করি। তাদের প্রতি আমরা শুভকামনা সবসময়ই রাখি। অনেক ভালো লাগলো আপনাদের সামনে এসে, এই অনুষ্ঠানে এসে। অনেক মানুষের অনুষ্ঠান, অনেক সুন্দর অনুষ্ঠান। ইনশাল্লাহ, আজ এই অডিটোরিয়ামে বলছি- এমন একদিন আসবে যেদিন আমরা এখানকার বড় কোনো স্টেডিয়ামে প্রোগ্রাম করবো। বিরাট প্রোগ্রাম করবো ইনশাল্লাহ।’

একপর্যায়ে শাকিব খানের হাতে অ্যাওয়ার্ড তুলে দেন আয়োজকরা। তিনি সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, ‘আমরা এখানে সিনেমা করতে যাচ্ছি। খুব ভালো পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের। আশা করছি আগামী রোজার ঈদ আপনাদের সঙ্গে কাটাবো। এখানে সিনেমা রিলিজ করে আপনাদের সঙ্গে রোজার ঈদ করবো ইনশাল্লাহ।’

প্রসঙ্গত, গত ১২ নভেম্বর প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে পা রাখেন শাকিব খান। এরপর ১৪ নভেম্বর নিউইয়র্কে চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস এবং ৪ ডিসেম্বর ঢালিউড অংশ নিয়েছেন ঢালিউড অ্যাওয়ার্ডে। এ নায়ক চলতি মাসেই দেশে ফিরবেন।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]