রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়া ঠেকাতে উগ্র বৌদ্ধদের বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৭ | আপডেট: ০৯:২৫ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৭
রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়া ঠেকাতে উগ্র বৌদ্ধদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নিয়ে আসা ঠেকাতে রাখাইন রাজ্যে বিক্ষোভ করেছে বৌদ্ধ ভিক্ষুরা। এছাড়া তাদের সঙ্গে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে চরমপন্থী জাতীয়তাবাদীরা। রোববার রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিটউইতে এ বিক্ষোভ করেছে তারা।

বিক্ষোভকারীদের অন্যতম নেতা অং হতে'র বরাত দিয়ে মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম ডেমোক্রেটিক ভয়েস অব বার্মা জানিয়েছে, রাখাইন রাজ্য ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া বাঙালিদের অনেকেই সন্ত্রাসী। আশঙ্কা করা হচ্ছে, তাদের ফিরিয়ে নিয়ে আসা হলে সহিংসতার পুনরাবৃত্তি ঘবে।

তিনি আরও জানান, পালিয়ে যাওয়া বাঙালিদের ফিরিয়ে নিয়ে আসার প্রকল্প রাখাইনের বৌদ্ধ জনগণ মেনে নেবে না। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বসবাস করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন বিক্ষোভকারীদের আরেক নেতা বৌদ্ধ ভিক্ষু ইউ ধামিকা।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও পুলিশের বেশ কিছু তল্লাশি চৌকিতে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসার) হামলার জেরে তাণ্ডব শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। ২৫ আগস্টের পর থেকে ছয় লাখ তিন হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা।

যাচাই-বাছাইয়ের পর নিজেদের দেশের নাগরিকদের ফেরত নেয়ার কথা জানিয়েছে মিয়ানমার। সে ক্ষেত্রে বৈধ প্রমাণাদি হাজিরের শর্ত রয়েছে। পুড়ে যাওয়া ঘরবাড়ি ফেলে জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের কাছে তেমন কোনো প্রমাণাদি নেই বললেই চলে। তাছাড়া মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্বও দেয়নি। সেক্ষেত্রে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার প্রক্রিয়াটাও অনেকটা জটিল এবং ধোঁয়াশায় ভরা।

সূত্র : ডেমোক্রেটিক ভয়েস অব বার্মা

কেএ/আরআইপি