তৃণমূলের বিধায়কসহ বিজেপিতে যোগ দিলেন অর্ধশতাধিক নেতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩২ পিএম, ২৮ মে ২০১৯

ভারতের এবারের লোকসভা নির্বাচনে প্রচারের সময় নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, পশ্চিমবঙ্গে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেসের অন্তত চল্লিশ জন বিধায়ক তার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। ফলাফল ঘোষণা হলে তারা দলবদল করবেন। মোদির সেই কথা এবার সত্যি হলো।

কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার রাজ্যসভার তিন বিধায়ক এবং ৫০ জনেরও বেশি কাউন্সিলর মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) যোগ দিয়েছেন। দলবদল করা এসব নেতার বেশির ভাগই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যারে দল তৃণমূল কংগ্রেসের।

যে তিনজন বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তাদের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের দুজন। একজন বামপন্থী দলের। বিজেপির নেতা মুকুল রায়ের ছেলে সুভ্রাংশু রায়ের নেতৃত্বে এসব নেতা বিজেপিতে যোগ দেন। মুকুল রায় এর আগে ছিলেন মমতার দলে। সম্প্রতি তার ছেলেকেও দল থেকে বের করে দেন মমতা।

দিল্লিতে বিজেপির প্রধান কার্যালয়ে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে দলবদলের এই ঘোষণা দেয়া হয়। সেখানে ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং মুকুল রায়সহ অন্য নেতারা। তারা সবাই মিলে দলে যোগ দেয়া নেতা-নেত্রীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন।

ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভির এক অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিজেপিতে যোগ দেয়া এসব নেতার মধ্যে তৃণমূলের ১৬ জন পৌর কাউন্সিলর রয়েছেন। রাজ্যসভার বিধায়ক তিনজন হলেন তৃণমূলের সুভ্রাংশু রায় ও তুষারকান্তি ভট্টাচার্য্য এবং সিপিএম এর দেবেন্দ্র নাথ রায়।

লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফায় ভোটের আগে মোদি পশ্চিমবঙ্গে এক জনসভায় মমতার উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, ‘রাজ্যের অন্তত ৪০ জন তৃণমূল বিধায়ক আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন এবং তারা বিজেপিতে যোগ দেয়ার জন্য পা বাড়িয়ে আছেন। নির্বাচনের পরই তা দেখতে পাবেন।’

এসএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :