যৌন হয়রানি করা শিক্ষককে বিবস্ত্র করে পেটাল জনতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৯

ছাত্রীদের যৌন হয়রানি এবং তাদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করার অভিযোগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে বিবস্ত্র করে পিটিয়েছে উত্তেজিত জনতা। তারপর ওই শিক্ষককে বিবস্ত্র অবস্থায় পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাঁকুড়া জেলায়।

কলকাতার বাংলা ভাষার গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম শেখ ফিরোজ খান। অনেক দিন ধরেই তিনি বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীদেরকে যৌন হেনস্থা করে আসছেন। তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতেই অভিভাবকরা তাকে এমন শাস্তি দিয়েছেন।

ইন্দাস বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি দীর্ঘ ছয় মাস ধরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এমনটা করছিলেন। অভিভাবকরা বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি অবহিত করলেও পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন আসেনি।

আরও পড়ুন> খোলা জানালার পাশে দৈহিক সম্পর্ক, ১০তলা থেকে মাটিতে দম্পতি

বুধবার অভিযুক্ত ওই শিক্ষক ছাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করলে তা জানাজানি হয়ে যায়। খবর পেয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। তারা প্রথমে স্কুলে এসে বিক্ষোভ করেন। একপর্যায়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে বিবস্ত্র করে পেটাতে পেটাতে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন।

উত্তেজিত জনতার এমন ঘটনার খবর পেলে ইন্দাস থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। তারা অভিযুক্ত শিক্ষককে উত্তেজিত জনতার কাছ থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। শিক্ষক আটক হওয়ার পর অভিভাবকরা তার কঠোর শাস্তির দাবি করেছেন।

এসএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :