পর পুরুষে আসক্তি, মশা নিধনের ওধুষ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৬ পিএম, ০৩ আগস্ট ২০১৯

হোয়াটস অ্যাপে অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক থাকায় স্ত্রীকে মশার ওষুধ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। ভারতের আগ্রায় ২৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর পরকীয়া মেনে নিতে না পেরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন।

ওই ব্যক্তির নাম সোনু। তিনি একজন সবজি বিক্রেতা। তার স্ত্রীর নাম অঞ্জলি। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নয় বছর আগে বিয়ে হয় এই দম্পতির। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। এদের বয়স চার এবং ছয় বছর।

বৃহস্পতিবার সুদামপুর এলাকায় তাদের বাড়ির কাছে একটি খোলা জায়গায় অঞ্জলির মরদেহ খুঁজে পাওয়া যায়। ইতমাদুদ দৌলার স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে নিজের স্ত্রীকে কথা বলতে দেখেন সোনু।

তিনি জোর করে তার স্ত্রীকে মশার ওষুধ খাওয়ালে অঞ্জলির মারা যায়। পরে সোনু তার স্ত্রীকে বাইরে ফেলে আসে। যখন এই ঘটনা ঘটে তখন তাদের দুই সন্তান ঘুমিয়ে ছিল।

অঞ্জলির বাবা তার মেয়ে নিখোঁজ হওয়ায় থানায় অভিযোগ জানানোর পরই এই ঘটনা সামনে আসে। পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করলে অঞ্জলিদের বাড়ির কাছ থেকেই তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর তার পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। স্ত্রীকে হত্যার ঘটনায় সোনুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

টিটিএন/এমকেএইচ