৫৩০০ কোটি ব্যারেলের তেল খনি আবিস্কারের দাবি ইরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:১৮ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

৫ হাজার ৩০০ কোটি ব্যারেলের অপরিশোধিত একটি নতুন তেলক্ষেত্র ইরান আবিস্কার করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। নতুন এই খনি থেকে তেল উত্তোলন করা হলে তা দেশটির তেল মজুদ তিনগুণ বাড়িয়ে দেবে।

রোববার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে ইরানের এই প্রেসিডেন্ট বলেন, নতুন এই তেলক্ষেত্রে আয়তন প্রায় ২ হাজার ৪০০ বর্গ কিলোমিটার। তেল ক্ষেত্রটির অবস্থান দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের খুজেস্তান প্রদেশে।

তিনি বলেন, এটি ইরানের জনগণের প্রতি সরকারের ছোট একটি উপহার। ইরাকের ওমিদিয়েহ শহর সীমান্ত সংলগ্ন খুজেস্তান থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে ৮০ মিটার গভীরে খনিটির সন্ধান পাওয়া গেছে।

বিশ্বের শীর্ষ তেল রফতানিকারকভূক্ত দেশগুলোর সংগঠন ওপেকের সদস্য রাষ্ট্র ইরান। এই তেলের খনির সন্ধান পাওয়ায় এখন দেশটির মোট তেল মজুদের ৩৪ শতাংশ বাড়বে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর নিষেধাজ্ঞার কারণে তেল বিক্রি নিয়ে লড়াই করতে হচ্ছে ইরানকে।

গত বছর ছয় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পারমাণবিক অস্ত্র চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র চূড়ান্তভাবে বেরিয়ে যাওয়ার পর তেহরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন। বিশ্বের শীর্ষ চতুর্থ তেল ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গ্যাসের মজুদ রয়েছে ইরানের।

কিন্তু ২০১৫ সালের স্বাক্ষরিত ঐতিহাসিক পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে যাওয়ার পর দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের বিরুদ্ধে কয়েক দফায় কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ওপেকের সদস্য ব্রিটেন, চীন, ফ্রান্স, জার্মানি ও রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে ইরানকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত সফল হয়েছে সামান্যই।

সূত্র : রয়টার্স, বিবিসি।

এসআইএস/পিআর