ভারতে ২৬৭ চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৪ এএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক-লাইকি-পাবজি নিষিদ্ধ করেছে অনেক আগেই। এবার চীনের আরও কিছু অ্যাপ নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ভারত। এ জন্য একটি তালিকা তৈরি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।

কোন কোন চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে, এ বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে জানা গেছে, যেসব চীনা অ্যাপ এখনও খুব আকর্ষণীয় ও বিপুল পরিমাণে ডাউনলোডও করা হচ্ছে, সেগুলোকেই নিষিদ্ধ করতে পারে ভারত সরকার।

গত ২৪ নভেম্বর নতুন করে ৪৩টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারা অনুযায়ী আলিবাবা ওয়ার্কবেঞ্চ, ক্যামকার্ডের মতো জনপ্রিয় ও গুচ্ছের ডেটিং অ্যাপস নিষিদ্ধ করা হয়।

কারণ হিসেবে ব্যাখ্যা করা হয়, এই চীনা অ্যাপগুলো এমনই কিছু কন্টেন্ট ভারতীয়দের সামনে হাজির করেছে, যেগুলো দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা, সুরক্ষা ও জনগণের শৃঙ্খলায় অত্যন্ত ক্ষতিকারক।

পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা আক্রমণে ভারতের বেশ কয়েকজন সেনা নিহত হওয়ার ঘটনার পর এই নিয়ে পঞ্চমবারের মতো চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ভারত। প্রথমবার ২৯ জুন ভারতে টিকটক, উইচ্যাটের মতো বিখ্যাত অ্যাপসহ মোট ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়।

একমাস ঘুরতে না ঘুরতেই জুলাই মাসে দ্বিতীয় ধাপে ৪৭টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয় ভারতে। ২ সেপ্টেম্বর তৃতীয় ধাপে পাবজিসহ মোট ১১৮ চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে মোদি সরকার।

চতুর্থ ধাপে অর্থাৎ ২৪ নভেম্বর আলিএক্সপ্রেস, উইওয়ার্কচায়না, ক্যামকর্ড এবং স্ন্যাকভিডিয়োর মতো জনপ্রিয় অ্যাপসহ মোট ৪৩টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়। এ নিয়ে মোট ২৬৭টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হলো ভারতে।

বিএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]