‘আসল পরিবর্তন’ এলে পশ্চিমবঙ্গে যেতে পারব?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:২০ পিএম, ২৩ মার্চ ২০২১

বিভিন্ন সময় নানা বিষয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন। বাংলাদেশ থেকে নির্বাসিত হওয়া এই লেখিকা বর্তমানে দিল্লিতে অবস্থান করছেন। বাংলাদেশ, ভারত ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন ইস্যুতে নানা সময় তাকে নিজের মতামত প্রকাশ করতে দেখা গেছে। তবে বেশিরভাগ সময়ই তার মতামত বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

ভারতের শক্তিমান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী বিজেপির মঞ্চে যোগ দেওয়ার পরপরই তাকে বিদ্ধ করেছিলেন তসলিমা নাসরিন। এবার তিনি বিজেপির দিকে প্রশ্ন ছুঁড়েছেন। বিজেপি আসল পরিবর্তন আনলে তিনি পশ্চিমবঙ্গে ঘুরতে যেতে পারবেন কীনা তা জানতে চেয়েছেন এই লেখিকা।

গত ৭ মার্চ বিজেপির ব্রিগেডে নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতে কেন্দ্রের শাসক দলে যোগ দেন মিঠুন চক্রবর্তী। শক্তিশালী স্লোগানে মন জয় করে নিয়েছিলেন ব্রিগেডে হাজির সাধারণ জনতার। তারপরই তার দিকে কটাক্ষ ছুড়ে দেন তসলিমা।

মিঠুনকে কটাক্ষ করে তসলিমা বলেন, ‘নানান ঘাটের জল খাওয়া সাপ খোপ নিয়ে বিজেপি কী করবে সেটাই ভাবছি। সাপ, তাও আবার পদ্ম গোখরো, কাকে ছোবল মারতে গিয়ে কাকে মারে, কে জানে! কেন যে বিজেপি কেঁচো খুঁড়তে গিয়েছিল!’ এরপরই তা নিয়ে পাল্টা প্রশ্নের মুখেও পড়েন লেখিকা।

আরও এক টুইটে সরব হয়েছেন তসলিমা। সরাসরি বিজেপিকে প্রশ্ন করেন তিনি। তবে এ প্রসঙ্গে সিপিএম ও তৃণমূল উভয়কেই প্রথমে কটাক্ষ করেছেন। লিখেছেন, ‘২০০৭ সালে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আমায় ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছিল সিপিএম। ২০০৯ থেকে তৃণমূল আমার পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ আটকে দিয়েছে। এবার কি বাংলায় ঘুরতে যেতে পারব যদি বিজেপি আসল পরিবর্তন আনে?’ শেষে আরও একটি ছোট মন্তব্য করেন, ‘স্রেফ ভাবছিলাম’। তসলিমা যাই ভেবে বলুন, এটাকে তীর্যক মন্তব্য বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ।

প্রসঙ্গত, তসলিমা নাসরিন ২০০৭ সাল থেকে পশ্চিমবঙ্গে যেতে পারছেন না। সেসময় একটি বই লিখে মৌলবাদীদের রোষের মুখে পড়েন তিনি। কার্যত ‘দ্বিখণ্ডিত’ হয়ে যায় বাংলার মুসলিম সমাজ। দাঙ্গা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় কলকাতার একাংশে। তারপরই তসলিমাকে ওই রাজ্য থেকে বিতড়ন করে তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকার। তারপর সরকার বদলালেও বাংলায় প্রবেশের অনুমতি পাননি বিতর্কিত লেখিকা। এ নিয়ে এর আগে একাধিকবার প্রশ্ন তুললেও এর প্রতিকার হয়নি।

টিটিএন/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]