সরবরাহ ব্যবস্থায় সমস্যা সত্ত্বেও বিশ্বে বেড়েছে অস্ত্র বিক্রি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩৪ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

সরবরাহ ব্যবস্থায় নানা ধরনের সমস্যা সত্ত্বেও বিশ্বে অস্ত্র বিক্রি বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। ২০২১ সালে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম উৎপাদনকারী বিশ্বের একশ বড় কোম্পানির বিক্রি এক দশমিক নয় শতাংশ বেড়ে ৫৯২ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এসআইপিআরআই) নতুন তথ্যে এমন পরিসংখ্যান পাওয়া গেছে। খবর আল-জাজিরার।

সোমবার (৫ অক্টোবর) এসআইপিআরআই তাদের প্রকাশিত তথ্যে জানায়, গত সাত বছর ধারাবাহিকভাবে বিশ্বে অস্ত্র বিক্রি বেড়েছে।

সংস্থাটি জানায়, ২০২১ সালে অস্ত্র বাণিজ্যে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় সরবরাহ লাইনে।

এসআইপিআরআই মিলিটারি এক্সপেন্ডিচার অ্যান্ড আর্মস প্রোডাকশন প্রোগ্রামের পরিচালক এক বিবৃতিতে বলেছেন, সরবরাহ লাইনে সমস্যা না হলে ২০২১ সালে আরও বেশি অস্ত্র বিক্রি হতে পারতো।

ছোট বড় সব কোম্পানি জানিয়েছে, গত বছর অস্ত্র বিক্রিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। অস্ত্র উৎপাদনকারী কোম্পানি এয়ারবাস ও জেনারেল ডাইনামিকসহ বেশ কিছু কেম্পানি কর্মী ঘাটতির কথা জানায়।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। এতে সরবরাহ লাইন আরও চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। কারণ অস্ত্র তৈরির ক্ষেত্রে পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার কাঁচামালের ওপর অনেক বেশি নির্ভরশীল।

এসআইপিআরআই জানায়, এমন পরিস্থিতির কারণে অস্ত্র মজুদের ক্ষেত্রে বেকায়দায় পড়তে পারে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলো। কারণ তারা বিলিয়ন বিলিয়ন মূল্যের সামরিক সরঞ্জাম ইউক্রেনে পাঠাচ্ছে।

অন্যদিকে পাশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার কারণে রাশিয়াও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। দেশটির অস্ত্র উৎপাদনে যেমন সমস্যা হচ্ছে তেমনি রাপ্তানির অর্থ পেতেও একই অবস্থা তৈরি হয়েছে। যদিও যুদ্ধের কারণে রাশিয়া উৎপাদন বাড়াচ্ছে।

এমএসএম

 

 

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।