মুখের পোরস নিয়ে সমস্যা? জেনে নিন সমাধান

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৬ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮

মুখের পোরস বা লোমকূপ বড় হলে আপনার সুন্দর মুখটাই মলিন হয়ে যায়। কারণ বাইরের ধুলোময়লা বলুন বা মেকআপের অবশেষ, পোরস বড় হলে সব কিন্তু ত্বকের গভীরে জমতে থাকে, আর তার অবশ্যম্ভাবী ফল ব্রণ বা অ্যাকনে। তবে উপায় আছে। খুব সাধারণ কিছু কৌশল প্রয়োগ করেই লোমকূপের আকার সংকুচিত করা যায় অনেকটাই। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক-

আরও পড়ুন: ভাতের মাড় দিয়ে রূপচর্চা!

পরিষ্কার কাপড়ে এক টুকরো বরফ মুড়ে গালে, কপালে আলতো করে ঘষুন। বরফ ত্বক টানটান রাখে, লোমকূপের আকার কমায়।

Pores

দইয়ের ল্যাকটিক অ্যাসিড আর প্রোবায়োটিক ব্যাকটেরিয়া লোমকূপে সংক্রমণ হতে দেয় না। টক দইয়ের পাতলা প্রলেপ সারা মুখে লাগিয়ে মিনিট দশেক রেখে দিন। তারপর ঠান্ডা পানির ঝাপটায় ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন করলেই তফাত বুঝতে পারবেন।

শসার রসে প্রাকৃতিক অ্যাস্ট্রিনজেন্টের গুণ আছে। ত্বককে সতেজ করতেও সাহায্য করে শসা। একটি শসা কুরিয়ে রসটা বের করে নিন। তারপর তুলোয় করে সারা মুখে লাগান। মিনিট পনেরো রেখে ধুয়ে ফেলুন।

Pores

আরও পড়ুন: মেকআপের মাধ্যমে ব্রণ ঢাকার উপায়

ডিমের সাদা অংশ ত্বক টানটান রাখে, তেলাভাবও কমায়। লেবুর ভিটামিন সি ত্বকের রঙে মসৃণতা আনে। একটি ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে এক চামচ লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

মুলতানি মাটির সঙ্গে গোলাপজল মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। মুখে লাগিয়ে না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। ত্বক নিমেষে ঝকঝকে হয়ে উঠবে।

এইচএন/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :