শিশু ঘুমায় না? জেনে নিন ৫ কারণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৮ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২০

একটি শিশু যখন আপনার জীবনে আনন্দের উপলক্ষ হয়ে আসে, আপনি প্রথমে যে জিনিসটি লক্ষ্য করতে পারেন তা হলো, আপনার ক্ষুদেটি পুরো রাত্র ঘুমায় না। এর কারণ আপনার নবজাতক টানা আট ঘণ্টা শান্তভাবে ঘুমাতে অভ্যস্ত না।

যদিও ছোট্ট শিশুটির ঘন ঘন জেগে ওঠা অস্বাভাবিক নয়, তবে সে যদি অসুস্থতা বা ক্লান্তির কারণে ঠিকঠাক ঘুমাতে না পারে তখন কী করবেন? টাইমস অব ইন্ডিয়া এমনপাঁচটি সাধারণ সমস্যার কথা উল্লেখ করেছে, যেসব সমস্যার কারণে শিশু ঠিকভাবে ঘুমাতে চায় না।

শিশুর অভ্যন্তরীণ ঘড়িটি ২৪ ঘণ্টা শিডিউলে অভ্যস্ত নয়
মনে রাখবেন, শিশুর নিজস্ব একটি সার্কাডিয়ান রিদম রয়েছে - এটি এমন একটি প্রক্রিয়া যা শরীরের ঘুম জাগ্রত চক্রকে নিয়ন্ত্রণ করে। আপনার নবজাতকের দিনের সময় এবং রাতের সময়ের পার্থক্য শিখতে ১২ সপ্তাহের বেশি সময় লাগতে পারে। তবে শিশুটি যাতে রাতে বেশি ঘুমায় তা নিশ্চিত করার জন্য আপনি ধীরে ধীরে তার দিনের বেলা জেগে থাকার সময়টি বাড়িয়ে তুলতে পারেন।ঘুমের চক্রটি পুনরায় সেট করার জন্য আপনি কিছুটা সময় শিশুকে বাইরে প্রাকৃতিক আলোতে রাখতে পারেন।

Sisu-2

শিশুটি ক্ষুধার্ত
যেহেতু শিশুর নিজস্ব প্রকাশ করার কোনো উপায় নেই, তাই না ঘুমানোর মাধ্যমে সে তার চাহিদার কথা আপনাকে জানান দিতে চেষ্টা করতে পারে। যদি আপনার ছোট্ট শিশুটি ঘুমাতে না চায়, তবে সে ক্ষুধার্ত বা তৃষ্ণার্ত হতে পারে। এমনকি যদি আপনি শিশুকে এক বা দুই ঘণ্টা আগেও খাইয়ে থাকেন, তবে মনে রাখবেন যে, নবজাতকদের ঘন ঘন খাওয়ানো প্রয়োজন। সুতরাং, যদি আপনার শিশু না ঘুমায়, তবে তাকে আবার খাওয়ানো দরকার কি-না তা পরীক্ষা করে দেখুন।

শিশু ক্লান্ত হয়ে পড়েছে
দিনের বেলা যদি অতিরিক্ত সময় জেগে থাকে তবে শিশুটি ক্লান্তবোধ করতে পারে। পরবর্তীতে ঘুম না আসার এটিও একটি কারণ। আপনার শিশুটি কখন ঘুমাতে চাইছে, ঠিকভাবে ঘুমের পরিবেশ পাচ্ছে কি-না সেদিকে নজর রাখুন।

Sisu-2

শিশু অস্বস্তিবোধ করছে
শিশুর জন্য তাপমাত্রা কি খুব গরম বা ঠান্ডা? ডায়াপার কি খুব টাইট বা ভেজা বা নোংরা? আপনার নবজাতক কেন ঘুমাতে পারছে না তা যদি আপনি বুঝতে না পারেন, তবে অস্বস্তির লক্ষণগুলো পরীক্ষা করার চেষ্টা করুন।

শিশুটি আপনার সাথে আরও বেশি সময় কাটাতে চায়
হ্যাঁ, মাঝে মাঝে শিশুকে আবার ঘুমানোর জন্য তাকে প্রশান্তি দিন। তাকে বুকের সঙ্গে মিশিয়ে রাখতে পারেন। এতে আপনার সঙ্গে তার বন্ধনও আর গাঢ় হবে।

এইচএন/এএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]