ব্রণ দূর করবে নিমের ৩ ফেসপ্যাক

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২০ পিএম, ১৫ জুন ২০২১

দাগহীন ও কোমল ত্বক পাওয়া প্রতিটি নারীর জন্য একটি স্বপ্ন। অনিয়মিত জীবনযাপনসহ বিভিন্ন দূষণ এবং প্রচুর রাসায়নিকযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহারের কারণে ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশেষ করে ব্রণ হওয়ার কারণে ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়।

তবে চিন্তিত না হয়ে বরং প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারের মাধ্যমে পেতে পারেন দাগহীন ও উজ্জ্বল ত্বক। তেমনই এক ভেষজ হলো নিম। যুগ যুগ ধরে ত্বক ও স্বাস্থ্যের উন্নতিতে ব্যবহৃত হয়ে আসছে নিম।

এই সবুজ পাতা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার প্রতিকার হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। খুব সহজেই এই উপাদানটি পাওয়া যায়। জেনে নিন দাগহীন, কোমল ও উজ্জ্বল ত্বক পেতে যেভাবে নিমের ফেসপ্যাক তৈরি করবেন-

jagonews24

নিম এবং হলুদের প্যাক

নিমে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য আছে। অন্যদিকে হলুদেও আছে নানা গুণ। নিমের সঙ্গে হলুদ মেশানো ফেসপ্যাক ত্বকের ব্রণ দূর করার পাশাপাশি আরও উজ্জ্বল আভা এনে দেবে ত্বকে।

এজন্য ২ চা চামচ নিমের গুঁড়ো, ২-৩ চিমটি হলুদের গুঁড়ো ও ১ চামচ হুইপ ক্রিম মিশিয়ে নিন। প্রয়োজনে কয়েক ফোঁটা পানিও ব্যবহার করুন। তৈলাক্ত ত্বকে লাগানোর সময় ক্রিম বাদ দিন। এই পেস্টটি আপনার পুরো মুখে লালিয়ে ১০ মিনিটের অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

jagonews24

নিম এবং তুলসির প্যাক

নিম এবং তুলসির প্যাক ব্রণ দূর করতে বিশেষ কার্যকরী। নিম এবং তুলসিতে অ্যান্টিসেপটিক বৈশিষ্ট্য থাকে, যা ত্বকের জন্য উপকারী বলে প্রমাণিত। এই প্যাকটি ত্বকের কালো দাগ ও ব্রণ কমাতে সাহায্য করবে।

এজন্য নিম ও তুলশি পাতার গুঁড়োর সঙ্গে ১ চামচ মধু ও ১ চামচ চন্দন কাঠের গুঁড়ো বা মুলতানি মাটি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি আপনার মুখে ব্যবহার করে ১০-১৫ মিনিট রেখে হালকাভাবে স্ক্রাব করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

jagonews24

নিম আর পেঁপের প্যাক

তাত্ক্ষণিকভাবে ত্বককে চাঙ্গা করতে ব্যবহার করতে পারেন নিম এবং পেঁপের ফেসপ্যাক। নিম এবং পেঁপের প্যাকটি নিস্তেজ ত্বকে দ্রুত চকচকে এবং সতেজতা আনবে।

এজন্য ২ চা চামচ নিমের গুঁড়ো এবং ২ টেবিল চামচ পাকা পেঁপে চটকে পেস্ট তৈরি করে মুখে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

জেএমএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]