লাল-সবুজ শেখ হাসিনা

সাহিত্য ডেস্ক সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪৩ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন

চারিদিকে গুমোট অন্ধকার
সূর্য অস্ত গিয়েছে পঁচাত্তরে
পবিত্র উর্দি পড়া অপবিত্র জল্লাদের হিংস্রতায়
চাঁদ ওঠে না বহুকাল। অমাবশ্যা
বাংলার ভাগ্যাকাশে স্থায়ী রূপ পরিগ্রহ করে।
একাত্তরে বাঙালির রক্তাক্ত মহত্তম অর্জন
প্রতিক্ষণ অপমানিত
বীর মুক্তিযোদ্ধা যেন ‘দেশদ্রোহী’
চারিদিকে নরঘাতকদের বীভৎস উল্লাস।
পবিত্র উর্দি গায়ে দেওয়া রক্তচোষা নেকড়ে
হয়ে ওঠে মূর্তিমান বেলুচি কসাই।
গভীর রাতে ফাঁসির মঞ্চে কিংবা ফায়ারিং স্কোয়াডে
মুক্তিযোদ্ধা বধ না করলে
সকালে সুশোভিত ডাইনিং টেবিলে
কালো রোদ-চশমা পড়েও স্বস্তি পেতো না
ইতিহাসের নতুন হিটলার।
তার ভারী বুটের আঘাতে পিষ্ট বাংলার রক্তাক্ত মানচিত্র।
কোথাও কোন আলো নেই, চারিদিকে
নিকষ কালো অন্ধকার। দিশেহারা মুক্তিকামী বাঙালি।
তেমনি এক অন্ধকার যুগে
মধ্য একাশির এক বৃষ্টিস্নাত বিকেলে
তুমি সর্বহারা, এক আলোর মশাল হাতে
স্বদেশের বুকে ফিরে আস।
তোমার আগমনে দিগ্বিদিক কাঁপিয়ে
উচ্চকণ্ঠে ধ্বনিত হয় জয় বাংলা রণধ্বনি।
তোমার ছোট্ট বুকে বঙ্গোপসাগরের মহীসোপানের
নীল জলরাশির চেয়েও অধিক কষ্ট,
দু’চোখে বাঁধভাঙা অশ্রুধারা। কিন্তু
তোমার মুখমন্ডলে বজ্রকঠিন শপথের
ইস্পাত দৃঢ় দীপ্তিময় আভা।
আবার ঈষাণ কোণে আলোর ঝলকানি,
আবার আশা জাগানিয়া স্বপ্ন, আবার
বাঙালির মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার প্রত্যয়। আবার
সমুখের পানে এগিয়ে যাবার অদম্য সাহস।
স্বদেশের মাটিতে প্রত্যাবর্তনের পর
তুমি বিরামহীন ছুটে বেড়িয়েছ মানচিত্রের প্রতি জনপদে।
কোটি দুখীর দু’চোখে হারিয়ে যাওয়া
কীর্তিমান পিতার স্নেহ খুঁজেছ, অগণিত দুখিনীর
দু’নয়নে মায়ের মমতা হাতড়েছ আকূল হয়ে।
যুবক, কিশোরের মাঝে হারিয়ে যাওয়া
প্রিয় অনুজদের ভালোবাসা খুঁজে পাবার
এক পরম ব্যাকূলতা এখনো বিদ্যমান।
তোমার স্বীয় আলোর দ্যুতিতে আলোকিত হয়েছে
প্রিয় স্বদেশ। তোমার অসম সাহসিকতায়,
তোমার কূটনৈতিক দূরদর্শিতায়
বর্ধিত হয়েছে স্বদেশের প্রিয় মানচিত্র।

তোমার বিচক্ষণতায়, কর্মদক্ষতায়
ভিক্ষুকের জাতির কলঙ্ক মোচন করে প্রিয় স্বদেশ আজ
নিজের হাঁটুর ওপর ভর করে দাঁড়িয়ে
এক অদম্য রূপ পরিগ্রহ করেছে।
নিকট অতীতের ক্ষুধার্ত বাংলাদেশ আজ
উন্নয়ন, অগ্রগতির বিশ্ব রোল মডেল।
শিশু, অনাথ, প্রতিবন্ধী, ভাগ্যাহত নারী থেকে
অশীতিপর সিনিয়র নাগরিক -
তোমার সেবার ছোঁয়ায় প্রত্যেকে মর্যাদাবান।
গাঁয়ের মেঠো পথ থেকে প্রমত্তা পদ্মার ওপর সেতু,
কারখানার সুঁই থেকে সাবমেরিন
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সশস্ত্র বাহিনী
প্রতি ক্ষেত্রে তোমার মমতার ছোঁয়া দৃশ্যমান।
তোমার প্রজ্ঞা, তোমার দৃঢ়তা দেশের অমিত সম্ভাবনার
স্বর্ণদুয়ার উম্মোচন করেছে।
মানবকল্যাণে, শান্তি প্রতিষ্ঠায়,
দারিদ্র্য বিমোচনে, নারীর ক্ষমতায়নে,
পিছিয়ে থাকা জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায়, সন্ত্রাস ও জঙ্গিমুক্ত বিশ্ব বিনির্মাণে
তোমার ভিশনারি দর্শন, তোমার অবিচল কর্মদক্ষতায়
বাংলার সীমানা পেরিয়ে তুমি আজ
বিশ্ব পরিমন্ডলে এক অনন্য উচ্চতায় আসীন।
বাঙালি আজ
তোমার মাঝে হারিয়ে যাওয়া বঙ্গবন্ধুর উচ্চতা,
হিমালয়ের উচ্চতা দেখে বুক ভরে শ্বাস নেয়।
ঘাতকের নিক্ষিপ্ত গ্রেনেড-বুলেট
তোমাকে স্তব্ধ করতে পারে নি।
স্বজন হারানোর সমুদ্রসম বেদনা
তোমার অগ্রযাত্রা থামাতে পারে নি।
শেখ হাসিনা- বাঙালির প্রিয় শেখের বেটি
তুমিই তো বাংলাদেশ, আমার প্রিয় মাতৃভূমি।
শুভ জন্মদিন বাঙালির প্রিয় পতাকার
লাল-সবুজ শেখ হাসিনা।

এইচএ/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]